অতুল পাল: পটুয়াখালীর বাউফলের ধুলিয়া ইউনিয়নে পাওনা টাকা চাওয়ায় দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। আজ শনিবার বেলা ১০টার দিকে ধুলিয়া ইউনিয়নের ভ্যারনতলা বাজারে এ ঘটনা ঘটেছে। আহতদের বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ধুলিয়া ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা হারুন অর রশিদ নামের এক ব্যাক্তি স্থানীয় আল আমিন নামের এক ব্যাক্তির কাছে ১ লাখ ৯০ হাজার টাকা পায়। ঘটনার দিন আল আমিনের ভাই কাদের মিয়ার কাছে হারুন অর রশিদ টাকা চাইতে গেলে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ঘটনাটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মো. আনিচুর রহমান রব (আসন্ন ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী) এবং মূ.হুমায়ুন কবীরের (আসন্ন ইউপি নির্বাচনে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী) কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে চলে যায়। এনিয়ে প্রথমে উভয় পক্ষের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পরে। এখবর পেয়ে নিয়ন্ত্রণের জন্য চেয়ারম্যান ঘটনাস্থলে গেলে উভয় পক্ষের মধ্যে দেশী অস্ত্রসস্ত্রসহ সংঘর্ষ বেঁধে যায়। সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়। গুরুতর আহত মো.শহিদুল ইসলাম (৫০), হারুন অর রশিদ (৪৫), সোয়াইব হান্নান (৩৫) এবং মো.সাইমুনকে (৩৩) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। আহত সকলেই নৌকার সমর্থক বলে জানা গেছে। নৌকার প্রার্থী মূ.হুমায়ুন কবীর অভিযোগ করেন, করোনার কারণে নির্বাচন স্থগিত থাকলেও বর্তমান চেয়ারম্যানের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড থেমে নেই। ঘটনাস্থলে চেয়ারম্যানের নির্দেশেই হামলা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বাউফল থানায় একাধিক অভিযোগ দিলেও পুলিশ কোন ভূমিকাই নিচ্ছেন না। ইউপি চেয়ারম্যান মো. আনিচুর রহমান রব বলেন, ঘটনা শুনে আমি উভয় পক্ষকে মিলিয়ে দিতে গিয়েছি। আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা এবং বানোয়াট।

Previous articleমাস্ক না পরায় লক্ষ্মীপুরে ২৪ ব্যাক্তির অর্থদণ্ড
Next articleরংপুরে ছাগলে পাট খেয়েছে ক্ষোভে নিবারণ চন্দ্রকে গলা টিপে হত্যা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।