অতুল পাল: পটুয়াখালীর বাউফলের বিলবিলাস আবদুর রশিদ সরদার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ইট, বালু, টিন ও খুঁটি নিয়ে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বিরুদ্ধে। বিষয়টি নিয়ে বিদ্যালয়ের দুইজন অভিভাবক পটুয়াখালী জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অবশ্য বিদ্যালয়ের সভাপতি ওই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, প্রায় ৮ বছর ধরে বিলবিলাস আবদুর রশিদ সরদার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন মনোয়ারা বেগম। বিদ্যালয়ের একটি আধাপাকা ঘর ভেঙ্গে বিদ্যালয়ের মাঠের এক পাসে স্তুপাকারে রাখা হয়েছিল। সম্প্রতি বিদ্যালয়ের ওই পুরাতন টিন, খুঁটি ও ইটসহ প্রায় ৯০ হাজার টাকার মালামাল নিয়ে সভাপতি মনোয়ারা বেগম তার বাড়ি নির্মাণের কাজে ব্যবহার করেছেন। এ বিষয়ে আবুল হোসেন গাজী ও সাইদুর রহমান নামের দুইজন অভিভাবক পটুয়াখালী জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযোগে তারা আরও উল্লেখ করেন, করোনাকালীন বিদ্যালয়ে সভা সমাবেশ নিষিদ্ধ থাকলেও সভাপতি ক্ষমতার প্রভাব খাঁটিয়ে তার পছন্দের ব্যক্তিকে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের জন্য ম্যানেজিং কমিটির সভা আহবান করেন। প্রধান শিক্ষক পদে বিজ্ঞপ্তি আহবান করে ২১জন প্রার্থীর আবেদনপত্র ব্যাংক ড্রাফটসহ সভাপতি তার নিজের কাছে গচ্ছিত রেখেছেন। সভাপতি ১৫ লক্ষ টাকার বিনিময়ে তার পছন্দের প্রার্থীকে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দিতে চাইছেন। সভাপতির নানান অনিয়মের প্রতিবাদ করায় সাধারণ শিক্ষকদের বেতনভাতা আটকে দেয়ার হুমকি দিচ্ছেন। অভিযোগ অস্বীকার করে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মনোয়ারা বেগম বলেন, আমার দীর্ঘদিনের সুনাম নষ্ট করার জন্য একটি মহল অপপ্রচার করছে। এতে আমি বিব্রত নই। পটুয়াখালী জেলা শিক্ষা অফিসার জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, অভিযোগের বিষয় তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Previous articleঈশ্বরদীর অর্থনীতির উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় ‘স্বপ্নদ্বীপ’
Next articleউল্লাপাড়ায় মহাসড়কে ১৪ লাখ টাকা ডাকাতির ঘটনায় গ্রেফতার ৩
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।