সুজন মহিনুল: ভারত থেকে পাসপোর্ট ও ভিসা ছাড়াই অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের দায়ে জরুরী সেবা ৯৯৯ এ দেয়া তথ্যে মিতালী দাস(২০)নামে এক ভারতীয় তরুণীকে গ্রেফতার করেছে নীলফামারী সদর থানা পুলিশ। তিনি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ি জেলার মালবাজার থানার নেতাজি কলোনির এলাকার অভিজিৎ দাসের মেয়ে। বুধবার (২৮ এপ্রিল)ওই তরুণীকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।এর আগে বুধবার (২৮ এপ্রিল) ভোরে সদর উপজেলার কুন্দুপুকুর ইউনিয়নের আঙ্গারপাড়া এলাকার একটি বাড়ী থেকে ওই ভারতীয় তরুণীকে গ্রেফতার করা হয়।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ৬ মার্চ মিতালী দাস দিনাজপুর জেলার হিলি সীমান্ত দিয়ে পাসপোর্ট ভিসা ছাড়াই কৌশলে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। পরে ঢাকার হেমায়েতপুরে তার চাচা রবিন্দ্র দাস ও গোবিন্দ দাসের বাসায় অবস্থান করেন। পরবর্তীতে ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল থানার শিবদীঘি নামক এলাকার তার এক বান্ধবীর সঙ্গে দেখা করেন।

এরপর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচিত এক বান্ধবীর সঙ্গে দেখা করতে নীলফামারী আসেন মিতালী দাস। ওই বান্ধবীর সঙ্গে ফেসবুকের মাধ্যমে বন্ধুত্বের সম্পর্ক তৈরি হওয়ায় তারা উভয়েই সব সময় মোবাইল ফোনে ও ফেসবুকের মাধ্যমে যোগাযোগ রক্ষা করতেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নীলফামারী সদর থানার ওসি আব্দুর রউফ বলেন, জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এর সংবাদের পরিপ্রেক্ষিতে অবৈধভাবে পাসপোর্ট, ভিসা ছাড়া ভারত থেকে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করায় মিতালী দাসকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ‌‘দ্যা কন্ট্রোল অব এন্ট্রি অ্যাক্ট এর ৪ ধারায় থানায় মামলা দায়ের করে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Previous articleকরোনা থেকে রক্ষা পেতে লকডাউন সমাধান না: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
Next articleবাউফলে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।