শহিদুল ইসলাম: বিভিন্ন মেয়াদে জেল খেটে ভারত থেকে বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যেমে ফিরে এসেছে ১ জন তরুনী ও দুইজন পুরুষ।

রোববার (৬ জুন) বিকালে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে ভারতীয় ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদের হস্তান্তর করে। এরা প্রত্যেকে ২ থেকে আড়াই বছর জেল খেটেছে।

ফেরত আসারা হলোঃ- ফরিদপুর জেলার সদরপুর থানার জরিপডাংগী গ্রামের জয়নাল হোসেনের ছেলে ইমরান হোসেন (২৬) ব্রাম্মনবাড়িয়া জেলার বানচারামপুর থানার গংগানগর গ্রামের শহিদ মিয়ার ছেলে এলাহী মিয়া (৫৫) খুলনা জেলার দিঘলিয়া থানার পারহাজী গ্রামের দিন আলী মোল্যার মেয়ে তাছলিমা আক্তার (২১)।

ফেরত আসা এলাহী মিয়া বলেন, অভাব অনটনের সংসারে দেশে কাজ না পেয়ে দালালদের মাধ্যেমে ভারত যাই। এরপর রাজস্থানে রাজমিস্ত্রির কাজ করার সময় সেখানকার পুলিশ আটক করে জেলে পাঠায়। এরপর ২ বছর জেল খাটার পর আরোয়া ডিটেক্টর নামে একটি শেল্টার হোমে ৬ মাস থাকার পর আজ দেশে ফিরি। তাছলিমা জানায় তার বোন দীর্ঘ দিন ভারত থাকে। তার মাধ্যেমে সে চোরাইপথে ভারত যায়। এরপর সেখানে গেলে পুলিশের কাছে ধরা পড়ে জেল খাটতে হয়।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন এর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসান হাবিব বলেন, ভালো কাজের আসায় এরা বিভিন্ন সীমান্ত পথে ভারত পাড়ি জমায় দালালদের মাধ্যেমে। এরপর সেখানে কাজ করার সময় সেদেশের পুলিশের কাছে আটক হয়ে আদালতের মাধ্যেমে জেল খানায় যায়। সেখান থেকে একটি শেল্টার হোমের মাধ্যেমে দুই দেশের উচ্চ পর্যায়ে চিঠি চালাচালির এক পর্যায়ে বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যেমে দেশে ফেরত আসে। ইমিগ্রেশন এর কাজ শেষে তাদের থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

বেনাপোল পোর্ট থানার এসআই সোহেল বলেন ফেরত আসাদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। এরপর যদি কোন এনজিও সংস্থা গ্রহন করে তাহলে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে।

Previous articleসাপাহারে বিষধর সাপের কামড়ে মানসিক ভারসাম্যহীন যুবকের মৃত্যু
Next articleমহাখালী বস্তিতে আগুন: ক্ষতিগ্রস্তরা পাবেন ৫ হাজার টাকা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।