অতুল পাল: বাউফলের ১৫টি ইউনিয়নের মধ্যে আগামি ২১ জুন ৯টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে ইতিমধ্যে গত ৯ জুন উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে বরিশাল অঞ্চলের নির্বাচন কমিশন, উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন এবং প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের নিয়ে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কিন্তু নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে ততই সহিংসতা বাড়ছে। মতবিনিময় সভায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের উন্মূক্ত আলোচনায় সে আভাস আরো ষ্পষ্ট হয়েছে। কালিশুরী এবং কালাইয়া ব্যতিত বাকি সাতটি ইউনিয়নেই নৌকার প্রার্থীরে বিপক্ষে সতন্ত্র হিসেবে আওয়ামী লীগেরই স্থানীয় নেতৃস্থানীয়রা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, বাউফলের ১৫টি ইউনিয়নের মধ্যে কাছিপাড়া, কালিশুরী, ধুলিয়া, কেশবপুর, কনকদিয়া, বগা, কালাইয়া, আদাবাড়িয়া এং চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নে আগামি ২১ জুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এরমধ্যে বগা ইউনিয়নে ইভিএম দিয়ে ভোট গ্রহন করা হবে। বাকি ইউনিয়নগুলোতে ব্যালটের মাধ্যমে ভোট নেয়া হবে। উল্লেখিত ইউনিয়নগুলোর মধ্যে কালিশুরী এবং কালাইয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে একক প্রার্থী থাকায় তারা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় গত ১১ এপ্রিল নির্বাচিত হয়ে গেছেন। সরেজমিন জানা গেছে, কেশবপুর ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থীর বিপক্ষে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতৃস্থানীয় তিনজন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এদের মধ্যে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক (বরখাস্তকৃত) বর্তমান চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক রয়েছেন। প্রত্যেক প্রার্থীদের সাথেই বিপুল সংখ্যক কর্মী সমর্থক রয়েছে। একারণে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ত্রিধাবিভক্ত রয়েছেন। এদিকে নৌকার প্রার্থী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জোট সরকারের সাবেক এমপি শহিদুল আলম তালুকদারের ভাই বিএনপি নেতা তসলিম তালুকদারেকে সাথে নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন। বিএনপির ওই নেতাকে সাথে নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা চালানোর প্রথম দিনেই আওয়ামী লীগের একাধিক কর্মীকে বেধরক মারধর ও এক চেয়ারম্যান প্রার্থীর বাড়িতে হামলা চালানো হয়েছে। এনিয়ে খোদ আওয়ামী লীগের মধ্যে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে। আওয়ামী লীগের সাধারন নেতাকর্মীদের অভিযোগ বিএনপি নেতা সাবেক চেয়ারম্যানকে নৌকার প্রচারণায় নামিয়ে কৌশলে আওয়ামী লীগকেই হেনস্থা করা হচ্ছে। এরফলে ভোটদানে ভোটারদের প্রভাব পড়বে। সতন্ত্র প্রার্থীরা জানায়, নৌকার সমর্থকরা তাদের প্রচারে বাধা দিচ্ছে। মাইক এবং গাড়ী ভাঙচুর করে প্রচারকাজে নিয়োজিত কর্মীদের মারধর করছে। এনিয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে একাধিক অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে। যদিও নৌকার প্রার্থী এসকল অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। এদিকে কেশবপুর ইউনিয়নে একাধিক খুন, খুন পরবর্তী সময়ে বাড়িঘরে লুটতরাজ, দোকানপাট বন্ধ করে রাখা এবং চুরি ও ডাকাতি ইত্যাদি লেগেই রয়েছে। যার কারণে সাধারন মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। পুলিশ প্রশসানও কেশবপুরকে নিয়ে সর্বদাই তটস্থ রয়েছেন। কেশবপুরের সতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীরা ভোটারদের ভয়হীনভাবে ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার নিশ্চয়তা এবং অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ এবং শান্তিপূর্ণ ভোট অনুষ্ঠানের দাবি জানিয়েছেন। প্রায় একই রকম অবস্থা ধুলিয়া ইউনিয়নে। সেখানেও নৌকার প্রার্থীর বিপরিতে বর্তমান চেয়ারম্যান সতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এছাড়া বিএনপির এক প্রভাবশালী নেতাও চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। ধুলিয়া ইউনিয়নেও ইতিমধ্যে কয়েকবার নির্বাচনী সহিংসতা ঘটেছে। চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থীর বিপক্ষে সতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান শক্ত অবস্থানে রয়েছেন। আদাবাড়িয়া ইউনিয়নে নৌকার বিপক্ষে আওয়ামী লীগেরই সতন্ত্র প্রার্থী রয়েছে। সেখানে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীও রয়েছে। সেখানেও একাধিকবার নির্বাচনী সহিংসতা হয়েছে।এছাড়া অন্যান্য ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থীদের অবস্থান তুলনামূলক ভাল রয়েছে। এদিকে গত ১২ জুন উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় উপস্থিত জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ সকল ভেদাভেদ ভুলে নৌকার পক্ষে কাজ করার জন্য আহবান জানিয়েছেন। সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে মনে করা হচ্ছে দুই থেকে তিনটি ইউনিয়নে নৌকার প্রাথীদের বিজয় সহজ হবে না। বাউফলের নির্বাচন কমিশনার সেলিম রেজা জানান,অবাধ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করতে সকল ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হচ্ছে। আশা করছি শান্তিপূর্ণ পরিবেশেই নির্বাচন হবে।

Previous articleরেলওয়ের রানিং কর্মচারীদের রানিং ভাতার দাবীতে পাকশীতে বিক্ষোভ
Next articleসাঁথিয়ায় উদ্বোধনের আগেই ৩কোটি টাকার সড়কে ধ্বস: ট্রাক উল্টে বসতবাড়িতে, আহত ৩
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।