এ.এস.লিমন: কুড়িগ্রামের রাজারহাটে স্বামীর নির্যাতনে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে ২৪ জুন বৃহস্পতিবার সকাল ১০ ঘটিকায় রাজারহাট উপজেলার সদর ইউপির কৈলাশকুটি গ্রামে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, রাজারহাট উপজেলার সদর ইউপির কৈলাশকুটি গ্রামের মো: আব্দুৃল কাদের মিয়ার পুত্র মো: সবুজ মিয়া (২৭) দীর্ঘদিন ধরে তার স্ত্রী এক সন্তানের জননী মোছা: রুমি বেগম (২০) কে নির্যাতন করে আসছিল। ২৩ জুন মঙ্গরবার দিবাগত রাতে স্বামী- স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া-বিবাধ হয়। এরই সূত্র ধরে ২৪ জুন বৃহস্পতিবার সকাল ১০ ঘটিকায় রুমি বেগম স্বামীর বাড়িতে থাকা ফসলের জমির দানাদার বিষ খান। পরে সবুজ মিয়ার বড় ভাই টের পেয়ে চিৎকার দিলে এলাকাবাসী ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে রাজারহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে চিকিৎসা প্রদান করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রিফার্ধ করে দিলে রাস্তায় রুমি বেগম মৃত্যু বরণ করেন। খবর পেয়ে রাজারহাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। রুমি বেগমের নানী মোছা: শাহেরা বেগম বলেন, সবুজ মিয়া দীর্ঘদিন ধরে রুমি বেগমকে প্রায় মারধর করত। পূর্বে রুমি বেগম তার নির্যাতন সহ্য না করতে পেরে বিদ্যানন্দ ইউপির সুখদেব এলাকার বাবার বাড়িতে চলে যায়। পরে সবুজ মিয়ার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতে নির্যাতন করবেন না বলে মুশলেখা দিয়ে নিয়ে আসার পরেও তাকে নির্যাতন করে আসছিল। এ বিষয়ে রাজারহাট থানার ওসি রাজু সরকার আতœহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Previous articleঈশ্বরদীতে মাস্ক ব্যবহার না করায় ৮ জনের অর্থদন্ড
Next articleবাউফলে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।