ফজলুর রহমান: উজানে থেকে নেমে আসা ঢল ও টানা বর্ষণে রংপুরের উপজেলার দুটি ইউনিয়নের ১০টি চরাঞ্চলে তিস্তার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। তিস্তার পানি বৃদ্ধির ফলে চরাঞ্চলের কিছু এলাকায় দেখা দিয়েছে নদী ভাঙন।

প্রতি বছর তিস্তা নদীর ভাঙ্গনের কবলে নিঃস্ব হচ্ছে চরাঞ্চল বাসী। বুধবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ভিন্ন চিত্র, কয়েকদিনেই উপজেলার ছাওলা ইউনিয়নের গাবুড়ার চর গ্রামের প্রায় অর্ধশত বসত বাড়ি তিস্তা নদী গর্ভে বিলীন হয়েছে। তিস্তা নদী গর্ভে বিলীনের পথে গ্রামে দাড়িয়ে আছে একমাত্র প্রতিষ্ঠান চর দক্ষিণ গাবুড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। ইতিপূর্বে ২০১৩ সালে প্রথম দফা তিস্তা নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যায় চর দক্ষিণ গাবুড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একটি দৃষ্টি নন্দন ভবন। পরে ২০১৪ সালে অপরিকল্পিতভাবে সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ ৫ শ মিটার দূরে নতুন জায়গায় আবারো একটি দৃষ্টি নন্দন ভবন নির্মাণ করেন। এলাকাবাসী জানান, গত বছর তিস্তা নদীর পাড় ভেঙ্গে বিদ্যালয় ভবনের নিকটে চলে আসে নদী। দীর্ঘ এক বছরেও ভবন রক্ষার জন্য কোন উদ্দ্যোগ গ্রহন করেনি সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ। বিদ্যালয়ের আশে পাশে রয়েছে প্রায় ২০টি পরিবার। সরকারি ভবনটি রক্ষায় সরকারের সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ এগিয়ে আসলে তিস্তা নদীর ভাঙ্গনের কবল থেকে রক্ষা পাবে চর দক্ষিণ গাবুড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনটি। এছাড়া ভাঙ্গনের হাত থেকে রক্ষা পাবে বিদ্যালয়ে পাশে থাকা ২০টি পরিবারের বসত বাড়ি। উপজেলা শিক্ষা অফিসার আতিকুর রহমান এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্যারকে বলেছি তিনি ভবন রক্ষার জন্য কি করবেন সেটা তার বিষয়। কারন তিনি নিলাম কমিটির সভাপতি। অনেকেই মনে করেন চর অঞ্চলে সরকারী একটি ভবন নির্মানের পূর্বে নির্মান কারী সংস্থা নদীর গতি বিধি লক্ষ্য করে ভবন নির্মান করলে হয়তবা বর্তমান অব্ধসঢ়;স্থা দেখতে হতো না। পীরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ শামসুল আরেফীন জানান, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পানি উন্নয়ন বোর্ডকে বিষয়টি অবগত করা হয়েছে। তারা প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দিয়েছেন। পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান হাবীব এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আমাদের মূল দায়িত্ব বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ রক্ষা করা। ভবনটি হচ্ছে প্লাবন ভূমিতে তবে উপজেলা প্রশাসনের অনুরোধে বালু ভর্তি বস্তা ফেলে ভবনটি রক্ষার জন্য চেষ্ঠা করা হচ্ছে ।

Previous articleচান্দিনায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ সহায়তা পেল ৩ হাজার ৭শ’ পরিবার
Next articleঠাকুরগাঁওয়ে বাড়ির গলি থেকে নারীর দগ্ধ মরদেহ উদ্ধার, হত্যা না আত্মহত্যা এ নিয়ে চাঞ্চল্য
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।