রেজাউল ইসলাম পলাশ: ঝালকাঠির রাজাপুরের সাতুরিয়ায় শেরে বাংলা একে ফজলুল হক প্রতিষ্ঠিত সাতুরিয়া এমএম উচ্চ বিদ্যালয়ের জমি রক্ষা ও নানা আর্থিক অনিয়মের প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে বিদ্যালয়ের সামনের বরিশাল-পিরোজপুর আঞ্চলিক মহাসড়কে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে ওই বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র ঐক্যপরিষদ ও অভিভাবকরা। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন, স্থানীয় আ’লীগ নেতা ও জেলা পরিষদ সদস্য আব্দুস সোবাহান খান, প্রাক্তন ছাত্র নুরুল আলম বাবুল ও রাসেল খানসহ অনেকে। বক্তারা বলেন, স্কুলের ৪ একরের অধিক জমির মধ্যে স্কুলের নামে ৩ একর জমি রেকর্ড রয়েছে। বর্তমানে ১ একর ২৮ শতাংশ জমি বেদখল রয়েছে। স্কুলের এসব জমি, দিঘি ও মাঠ উদ্ধার করে বিদ্যালয়ের নামে হস্তান্তর ও স্কুলের নানা অনিয়ম তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেয়া এবং পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন বক্তারা। অন্যথায় আরও কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন তারা। মানববন্ধনে বিদ্যালয়টির প্রাক্তন ছাত্র ও অভিভাবকদের একাংশ সহ প্রায় দুই শতাধিক মানুষ অংশ নেন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক ফজলুল হক আকন বলেন, বেদখলীয় জমি উদ্ধারের জন্য পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমি (প্রধান শিক্ষক) বাদী হয়ে গত ২০২০ সালে সহকারী জজ আদালতে মামলা দায়ের করি যাহা বিচারাধীন রয়েছে। এছাড়াও গত দশ বছরে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কারও কাছ থেকে বেতন আদায় করা হয় না বা বিদ্যালয়ের অন্য কোন খাতে অর্থ আয় হয় না, সেখানে আর্থিক অনিয়মের সুযোগ নেই। এ সংক্রান্ত অভিযোগের বিভাগীয় তদন্ত শেষে আর্থিক অনিয়মের কোনো প্রমাণ মেলেনি। তিনি আরও বলেন ইতিমধ্যে দিঘির লিজ বাতিল, পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের জন্য খসরা ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।

Previous articleকে এই সোহাগ মুন্সি?
Next articleমানুষ এখন চরিত্রবান লোককে ক্ষমতায় দেখতে চায়: কাদের
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।