বাংলাদেশ প্রতিবেদক: গর্ভধারণের চিকিৎসা করার নামে রাজবাড়ী জেলা সদরের খানখানাপুর মল্লিকপাড়া এলাকায় এক গৃহবধূকে দফায় দফায় ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক কবিরাজের বিরুদ্ধে। এ ঘটনার ন্যায়বিচারের দাবিতে ওই গৃহবধূ (২০) বাদী হয়ে রাজবাড়ী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ অভিযুক্ত কবিরাজ আবদুল কুদ্দুস শেখকে (৬০) গ্রেপ্তার করে বৃহস্পতিবার (৭ অক্টোবর) আদালতে সোপর্দ করেছে।

মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, চার বছর পূর্বে ভুক্তভোগী গৃহবধূর বিয়ে হয়। কিন্তু সন্তান না হওয়ায় সে বিভিন্ন জায়গায় ডাক্তারি ও কবিরাজি চিকিৎসা গ্রহণ করতে থাকেন। তাতেও গর্ভধারণ করতে না পেরে খানখানাপুর মধ্যডাঙ্গা এলাকার মৃত নছর উদ্দিন শেখের ছেলে কবিরাজ আবদুল কুদ্দুস শেখের কাছ থেকে দুই মাস চিকিৎসা গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে চিকিৎসার অগ্রগতির খোঁজ নেওয়ার ছলে ওই গৃহবধূর বাসায় এসে গর্ভধারণের প্রলোভন দেখিয়ে কয়েক দফায় তাকে ধর্ষণ করেন অভিযুক্ত কবিরাজ।

রাজবাড়ী সদর থানার ওসি মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন বলেন, ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে বুধবার (৬ অক্টোবর) রাতে খানখানাপুর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশের সহযোগিতায় অভিযুক্ত কবিরাজ আবদুলল কুদ্দুস শেখকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং আজ তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

Previous articleসচিব পরিচয়ে কোটি টাকার প্রতারণা, আটক ৫
Next articleনোয়াখালীতে তরুণীর মরদেহ উদ্ধার, প্রেমিকের বিরুদ্ধে মামলা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।