এস এম শফিকুল ইসলাম: জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার পশ্চিম রামচন্দ্রপুর গ্রামের পলাশ হোসেনকে হত্যার দায়ে স্ত্রীসহ প্রেমিকের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাদের ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে জয়পুরহাট জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নূর ইসলাম এ রায় দেন। কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- নওগাঁর বদলগাছীর শমাপুর গ্রামের শফিউর রহমানের মেয়ে ছনি খাতুন(২৯) তার পরকীয়া প্রেমিক জেলার পাঁচবিবি উপজেলার পশ্চিম রামচন্দ্রপুর গ্রামের বাবলু মন্ডলের ছেলে রনি হোসেন (২৬)।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ১১ মার্চ সকালে পাঁচবিবি উপজেলার পশ্চিম রামচন্দ্রপুর গ্রামের আবু বক্কর সিদ্দিকের ছেলে পলাশ হোসেনের মরদেহ নিজ বাড়ির সামনের পুকুরে গলায় রশি দেওয়া ফাঁস অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় নিহতের বাবা আবু বক্কর সিদ্দিক বাদী হয়ে পাঁচবিবি থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলায় স্ত্রী সনি খাতুন ও তার প্রেমিক রনি হোসেনকে আসামি করা হয়। মামলার তদন্ত চলাকালে আসামি সনি খাতুন স্বেচ্ছায় আদালতের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। তিনি উল্লেখ করেন, উপজেলার পশ্চিম রামচন্দ্রপুর গ্রামের একটি খামার বাড়িতে চাকুরির সুবাদে রনি হোসেনর সঙ্গে পরিচয় হয় সনি খাতুনের। পরে তারা পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। তার স্বামী পলাশ হোসেন তাকে ও তার প্রেমিক রনি হোসেনকে নিয়ে সন্দেহ করতেন। সেই জন্য তারা দুজনেই নিজ ঘরে খাবারের সাথে ঘুমের ট্যাবলেট খাওয়ান। এরপর স্বামী ঘুমিয়ে পড়লে সে ও তার পরকিয়ার প্রেমিক শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দেন। দীর্ঘ শুনানি শেষে আদালত এ রায় প্রদান করেন । এ বিষয়ে জয়পুরহাট জেলা দায়রা জজ আদালতের সরকারি কৌঁসুলি এ্যাডঃ নৃপেন্দ্রনাথ মন্ডল বিষয়গুলো নিশ্চিত করেছেন।

Previous articleদীর্ঘ প্রতিক্ষার পর অবশেষে রংপুর-পঞ্চগড় রুটে ‘রংপুর-বাংলাবান্ধা এক্সপ্রেস’ বাস চলাচল শুরু
Next articleবেগমগঞ্জে নৌকার নির্বাচনী অফিসে অগ্নিসংযোগ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।