আব্দুদ দাইন: পাবনার সাঁথিয়ায় কৌশিক হোসেন (১৫) নামে ৭ম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা করেছে দূর্বৃত্তরা। সে উপজেলার আর আতাইকুলা ইউনিয়নের গাঙ্গুহাটি নতুন পাড়ার হারুণ অর রশিদের ছেলে। পোস্টার লাগানের টাকা ভাগাভাগির বিরোধের জেরে এই হত্যাকান্ড হয়েছে বলে স্বজনদের অভিযোগ।

থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, শনিবার (২০ নভেম্বর) সকালে কাউকে কিছু না বলে বাড়ি থেকে বের হয় মিয়াপুর জসিম উদ্দিন স্কুল এন্ড কলেজের ৭মশ্রেণির ছাত্র কৌশিক হোসেন। কৌশিকের মা জাহানারা খাতুন জানান, সন্ধ্যা পর্যন্ত সে বাড়িতে না ফেরায় বিভিন্ন জায়গায় আমর খোঁজাখুঁজি করি। পরে পাশের গ্রামের মেহগনির বাগানে লাশ পাওয়ার সংবাদ পেয়ে সেখানে গিয়ে কৌশিকের লাশ সনাক্ত করি। সন্ধ্যার পর আতাইকুলা থানার বামনডাঙ্গা গ্রামের মেহগনি বাগানে কৌশিকের লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে সংবাদ দেয় এলাকাবাসী। সংবাদ পেয়ে ওই বাগান থেকে স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার করেন আতাইকুলা থানা পুলিশ। শুক্রবার আর-আতাইকুলা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের স্বতন্ত্র প্রার্থী নিজাম উদ্দিনের ঘোড়া মার্কা প্রতিকের পোস্টার লাগান কৌশিক ও তার বন্ধুরা। এলাকাবাসীর ধারণা পোস্টার লাগনো ১৫শত টাকার ভাগবাটোয়ারা নিয়ে নিজেদের মধ্যে বিরোধের সূত্রধরে এ হত্যা কান্ড সংঘটিত হতে পারে। রবিবার সন্ধ্যা এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল । রোববার লাশের ময়না তদন্তের জন্য পাবনা মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। আতাইকুলা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) জালাল উদ্দিন জানান, সংবাদ পেয়ে স্কুল ছাত্রের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। হত্যা কান্ডের রহস্য উন্মোচনের চেষ্টা চলছে।

Previous articleময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানার বিশেষ অভিযানে গ্রেফতার ১১ জন
Next articleফেসবুক নিয়ে ঝগড়া, সাঁথিয়ায় বিষপানে স্বামী-স্ত্রীর আত্মহত্যা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।