শফিকুল ইসলাম: জয়পুরহাটের কালাই পৌরশহরের আঁওড়া মহল্লায় জমাজমির জেরে বৃদ্ধ পিতা আকবর আলীকে (৯০) নিজ শয়ন কক্ষে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ নিজ ছেলেদের বিরুদ্ধে। রোববার ভোরে আঁওড়া মহল্লায় এ ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই বৃদ্ধর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালের মর্গে পাঠান।

প্রতিবেশী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃদ্ধ আকবর আলীর এক স্ত্রী, তিন ছেলে আর দুই মেয়ে। তার বসতবাড়ীতে ৮ শতাংশ জমি রয়েছে। কিছুদিন আগে ওই জমির মধ্যে তার ছোট ছেলে খাজের আলীকে ৩ শতাংশ জমি দলিল মুলে লিখে দেন। বৃদ্ধ মেঝ ছেলে আব্দুল কুদ্দুসের সংসারে খাবার খেতেন বলে তাকে ৫ শতাংশ জমি দলিল মুলে লিখে দেন। আর বড় ছেলে আব্দুল গফুরকে কোনো জমি দেননি। তবুও তার কোন ক্ষোভ নেই। ছোট ভাই ও মেঝ ভাইয়ের মধ্যে বাবার জমির অংশ কম-বেশী হওয়ার কারনে প্রায় মাসখানেক ধরে বৃদ্ধ পিতার সাথে ছোট ছেলে খাজের আলীর ঝগড়া বিবাদ লেগেই ছিল। বসতবাড়ীর ওই জমির জেরে রোববার ভোরে ছোট ছেলে খাজের আলী তার ছেলে এমরান আলীকে সাথে নিয়ে বৃদ্ধর শয়ন কক্ষে প্রবেশ করে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যার পর তাকে বাঁশের বর্গার সাথে ঝুলিয়ে রাখে। যাতে করে কেউ বুঝতে না পারে ওই বৃদ্ধকে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে বৃদ্ধর ছেলে ও নাতী মিলে এমন নাটক সাজিয়েছে বলে ধারনা প্রতিবেশীদের। নিহত বৃদ্ধর বড় ছেলে আব্দুল গফুর কাঁদতে কাঁদতে বলেন, আমার বাবা এই বয়সে আত্মহত্যা করতে পারেনা। সে নিজে ঠিকমত দাড়াতেও পারেনা। তাহলে আত্মহত্যা করবে কিভাবে। তাকে হত্যা করা হয়েছে। আমি থানায় মামলা করবো। বাবা হত্যার বিচার চাই। পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ড কমিশনার মোস্তাক আহম্মেদ বলেন, আকবর আলীর বয়স অনেক। সে কেন আত্মহত্যা করতে যাবে। মহল্লার সবাই জানে জমাজমির অংশ নিয়ে তার ছোট ছেলে খাজের আলীর সাথে বেশ কিছুদিন ধরে ঝগড়া-বিবাদ লেগে আছে। এরই জেরে বৃদ্ধকে গলায় ফাঁস দিয়ে হত্যা করা হতে পারে। ছেলে ও নাতী মিলে এ ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে এখন আত্মহত্যার কথা বলছে। এটা তাদের সাজানো নাটক ছাড়া কিছুই নয়। কালাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম মালিক বলেন, পরিবারে জমাজমি নিয়ে বিরোধ এমনটা শুনেছি। তবে হত্যা না আত্মহত্যা তার মুল রহস্য উৎঘাটন করতেই ওই বৃদ্ধর লাশ উদ্ধারের পর ময়না তদন্তের জন্য জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। রির্পোট হাতে পেলেই সবকিছু জানা যাবে। এখন পর্যন্ত মামলা বা অভিযোগ কিছুই হয়নি।

Previous articleঅনুসন্ধানী সাংবাদিকতার বর্তমান বাস্তবতা ও করণীয় শীর্ষক রংপুরে মতবিনিময় সভা
Next articleমধ্যনগরে নৌকাকে সমর্থন জানিয়ে সরে দাঁড়ালেন স্বতন্ত্র প্রার্থী শফিক
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।