বাংলাদেশ প্রতিবেদক: জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার ৪নং আওনা ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী শাহীনুর রহমান শাহীনকে অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার দুপুরে জগন্নাথগঞ্জ ঘাট এলাকায় নৌকার সমর্থকদের সাথে সংঘর্ষ হয়েছে।

এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রচার মাইক, সিএনজি অটোরিকশা, পেট্রোল পাম্প, ইটভাটা ও আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহীনুর রহমান শাহীন (আনারস) অভিযোগ করেন, নৌকার প্রার্থী বেল্লাল হোসেনের লোকজন তাকে বাড়িতে অবরুদ্ধ করে রেখে প্রচারণায় বাধা ও কর্মী-সমর্থকদের হুমকি দিয়ে আসছে। তারা আনারসের নির্বাচনী অফিস বেদখল করে রাখে।

মঙ্গলবার দুপুরে আনারস প্রতীকের প্রচার মাইক বের হলে নৌকার লোকজন জগন্নাথগঞ্জ ঘাট এলাকায় হামলা চালায়। হামলাকারীরা আনারসের প্রচার মাইক, সিএনজিচালিত অটোরিকশা, স্বতন্ত্র প্রার্থীর ভাইয়ের মালিকানাধীন মেসার্স চাঁন মিয়া ফিলিং স্টেশন ও ইটভাটা ভাঙচুর করে। একইসময় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। উভয়পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন কর্মী আহত হয়। গুরুতর আহত শাহানশাহ ও নূরে আলমকে সরিষাবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে অভিযোগ অস্বীকার করে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান বেল্লাল হোসেন জানান, ‘স্বতন্ত্র প্রার্থীর লোকজন সংঘর্ষের সূত্রপাত করেছে।’

ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলা ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘স্বতন্ত্র প্রার্থীর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে হামলা কে করেছে তা আমি জানি না।’

তারাকান্দি পুলিশ তদন্তকেন্দ্রে ইনচার্জ (পরিদর্শক) আব্দুল লতিফ বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Previous articleদেশে করোনায় আরও ১ জনের মৃত্যু
Next articleইউরোপের কথা বলে ভারতে নিয়ে টর্চার সেলে নির্যাতন ও মুক্তিপণ আদায় করতো: র‌্যাব
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।