সাহারুল হক সাচ্চু: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় প্রায় বাইশ বছর বয়সী বাক প্রতিবন্ধী শিপ্রা রাণী দাস এর গর্ভের নব জাতক সন্তানের পিতৃ পরিচয় ও তাকে স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন মা কল্পনা রাণী দাস ।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, উল্লাপাড়া পৌরসভার ঝিকড়া মহল্লার দাস পাড়ার স্বর্গীয় কমল চন্দ্র দাসের মেয়ে অবিবাহিতা শিপ্রা রাণী দাস একজন বাক প্রতিবন্ধী ৷ একই মহল্লার প্রতিবেশী বসতি সুশীল চন্দ্র দাসের ছেলে প্রায় ছএিশ বছর বয়সী বিবাহিত লক্ষণ চন্দ্র দাস বিভিন্ন প্রলোভনে , ফুসলিয়ে ও ভুল বুঝিয়ে শিপ্রা রাণী দাসের সাথে অবৈধ শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে এবং সুযোগ বুঝে বিভিন্ন সময়ে শিপ্রাকে ধর্ষণ করে । এতে শিপ্রা রাণী দাস গর্ভবতী হয়ে পড়ে । প্রথম দিকে লোক লজ্জার ভয়ে বিষয়টি গোপন রাখা হয়৷ পরবর্তিতে তা জানা জানি হয় ৷

গত ৮ ডিসেম্বর সকাল দশটার দিকে শিপ্রা রাণী দাসের প্রসব বেদনা শুরু হলে উল্লাপাড়া পৌর শহরের সেবা হাসপাতালে নিয়ে সিজারের মাধ্যমে একটি পুত্র সন্তানের জম্ম দেয় । তার নাম রাখা হয় সিদ্ধার্থ ৷ এরপর গ্রামবাসীদেরকে নিয়ে নবজাতক সন্তানের পিতৃ পরিচয় ও স্ত্রীর মর্যাদা আদায়ের জন্য লক্ষণ চন্দ্র দাসের কাছে গেলে সে বিভিন্ন ধরণের হুমকি দেয় ৷ এমন অবস্থায় শিপ্রা রাণী দাসের মা কল্পনা রাণী দাস গত ক্#৩৯;দিন আগে বাদি হয়ে লক্ষণ চন্দ্র দাসের বিরুদ্ধে উল্লাপাড়া মডেল থানায় সন্তানের পিতৃ পরিচয় ও স্ত্রীর মর্যাদা চেয়ে মামলা দায়ের করে । উল্লাপাড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ হুমায়ুন কবীর গণমাধ্যমকে জানান আসামী লক্ষণ চন্দ্র দাসকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে৷

Previous articleনোয়াখালীতে নৌকার নির্বাচনী ক্যাম্প ভাঙচুর
Next articleমুলাদী পৌর সদরে দিন দুপুরে পাঁচ বাসায় চুরি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।