এস কে রঞ্জন: পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নে ঢাকা- কুয়াকাটা মহাসড়কে যাত্রীবাহী বাস ও ইজিবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষে মো.বায়জিদ (১৪) এবং সেলিম তালুকদার (৪৭) মারাগেছে।

২ ফেব্রুয়ারি বুধবার সকাল ৭ টার সময় নীলগঞ্জ ইউনিয়নের ঘুটাবাছা নামক স্থানে ঢাকা থেকে যমুনা লাইন পরিবরহনটি কুয়াকাটায় যাওয়ার পথে কলাপাড়াগামী ইজিবাইকের সঙ্গে সংর্ঘষ হয়। এতে নিহত হযেছেন ওই ইউনিয়নের গৈয়াতলা গ্রামের মো.ইউনুচ প্যাদার ছেলে মো.বায়জিদ,একই ইউনিয়নের গামৈরতলা গ্রামের তানজের আলীর পুত্র সেলিম তালুকদার।

এই দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত ইজিবাইক চালক মো.মামুন প্যাদা (২৩),যাত্রী নিজাম উদ্দিন (৩৫) ও আরাফাত (২২) কে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কলাপাড়া থানা পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান,যমুনা লাইন পরিবহন নামের গাড়িটি ঢাকা থেকে ছেড়ে কুয়াকাটা যাচ্ছিল। ঘন কুয়াশার কারনে কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের ঘুটাবাছা নামক স্থানে পৌছলে গাড়ির চালক নিয়ন্ত্রন হারিয়ে বিপরীত দিক থেকে আসা ইজিবাইকের সঙ্গে মুখোমুখি সংর্ঘ হয়। খবর পেয়ে কলাপাড়া ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের স্থানীয়দের সহায়তা উদ্ধার করে কলাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে আসে।

স্থানীয়রা জানায়, ইজিবাইকে করে সেলিম তালুকদার ও বায়েজিদসহ অন্যরা মাছ বিক্রি করার জন্য কলাপাড়া শহরের বাজারে যাচ্ছিলেন। কলাপাড়া হাসপাতালের চিকিৎসক মো.ইকবাল হোসেন বলেন,মারা যাওয়া দ্#ু৩৯;জনের মধ্যে একজন ঘটনাস্থলেই মারা যায়। তাঁর মাথা থেতলে গেছে। বায়েজিদ নামে আরেকজন হাসপাতালে আনার পর মারা গেছেন। আহত তিন জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.জসীম বলেন,দূর্ঘটনার পরই পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক গাড়িটি আটক করা হয়েছে। গাড়ির চালক সহ অন্যান্যরা পালিয়ে গেছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

Previous articleপাঁচবিবিতে কোনঠাসা স্বতন্ত্র প্রার্থীরা, নৌকার পক্ষে কাজ করাতে প্রতিদ্বন্দ্বী সদস্য প্রার্থীদের শপথ!
Next articleগভীর রাতে প্রেমিকাকে বাড়ি থেকে ডেকে বন্ধুদের নিয়ে গণধর্ষণ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।