অতুল পাল: বাউফল পৌরসভার সাথে সীমানা জটিলতায় আটকে থাকার ১১ বছর পর আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি সোমবার বাউফল সদর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনকে ঘিরে ভোটার ও সমর্থকদের মধ্যে আনন্দের আমেজ বইছে।

বাউফল সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন, সাধারন ইউপি সদস্য পদে ৩৫ জন ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৯জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। পোষ্টার-ব্যানারে ছেঁয়ে গেছে রাস্তাঘাট। প্রার্থীদের গণসংযোগ ও প্রচার-প্রচারণায় এখন মূখরিত নির্বাচনী মাঠ। সরেজমিন দেখা গেছে, ব্যানার, পোস্টার, নানা ঠংয়ের গানের সুরে মাইকে প্রচার, বাড়ি বাড়ি গণসংযোগ এবং উঠান বৈঠকে ভোট চেয়ে দিন-রাত ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা।

চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মো. জসিম উদ্দিন খান (নৌকা), নৌকার বিদ্রোহী মো. দেলোয়ার হোসেন (ঘোড়া), মো. মুজিবুর রহমান (আনারস), মো. জাহিদুল ইসলাম (চশমা) এবং ইসলামী আন্দোলনের মো. আলাউদ্দিন সিকদার (হাতপাখা) প্রতিক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নৌকা প্রতিকের বিপক্ষে নির্বাচন করছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মো.মুজিবুর রহমান ও সাংগঠনিক সম্পাদক মো. দেলোয়ার হোসেন। ফলে নৌকা প্রার্থীর গলার কাঁটা এখন বিদ্রোহী প্রার্থীরা। অপরদিকে লাভবান হচ্ছে আওয়ামী লীগ বিরোধি পক্ষ।

চশমা প্রতিকের মো. জাহিদুল ইসলাম আওয়ামী লীগের একটি অংশ এবং স্থানীয় বিএনপির সর্মথন নিয়ে নির্বাচনের মাঠে বেশ শক্ত অবস্থানে রয়েছে। ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী মো. আলউদ্দিন সিকদার ও তার কর্মী-সমর্থকেরাও প্রচার-প্রচারণায় অনেকটাই সরব। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের দাবি করেন, নৌকা প্রতিক যাকে দেয়া হয়েছে তিনি টানা ১১ বছর চেয়ারম্যান ছিল। এসময় তিনি দলীয় নেতা-কর্মীদের অবমূল্যায়ণ করেছেন। যার করনে দলের নেতা-কর্মীরা তার ওপর অসন্তোষ্ট। আমরা নৌকার বিরোধিতা করছিনা, নৌকা প্রার্থীর বিরোধীতা করছি। তবে আওয়ামী লীগের সাধারন নেতা-কর্মীরা জানান, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রকাশ্য দ্বন্দ্বের প্রভাব পড়েছে বাউফল ইউপি নির্বাচনে।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও স্থানীয় সাংসদ আ.স.ম ফিরোজ গ্রুপ নৌকার পক্ষে কাজ করলেও অপর দুটি পক্ষ নিস্ক্রীয় রয়েছেন। গোপণে বিদ্রোহী প্রার্থীদের সর্মথন দিচ্ছেন বলেও অভিযোগও উঠেছে। অপরদিকে, সাধারন ও সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডের কর্মী- সমর্থকদের মিছিলে মিছিলে সরগরম রয়েছে গ্রাম ও পাড়া মহল্লা। প্রার্থীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে মা-বোনদের কাছে তাদের যোগ্যতা তুলে ধরে ভোট প্রার্থণা করছেন। দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। সাধারন ভোটাররা অবাধ ও সুষ্ঠু ভোটের মাধ্যমে সৎ ও যোগ্য প্রার্থী তারা বেছে নেবেন বলে তাদের অভিমত ব্যাক্ত করেছেন।

Previous articleসাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলার বিচার কাজ সম্পন্ন করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা
Next articleমিঠাপুকুরে ইউপি নির্বাচনে ৫ লাখ টাকায় এক সদস্যকে জিতিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি, অডিও ক্লিপ ফাঁস
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।