অতুল পাল: কেন্দ্রীয় বিএনপির পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসাবে বাউফল উপজেলা বিএনপির উদ্যোগে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন উর্ধ্বগতিসহ বিভিন্ন দাবি নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করেছে। অপরদিকে উপজেলা যুবলীগের উদ্যোগে জনবিচ্ছিন্ন বিএনপি-জামায়াতের দেশবিরোধী ষরযন্ত্র রুখে দিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

আজ শনিবার বেলা ১০ টার দিকে বাউফল হাসপাতাল রোডে বিএনপির কার্যালয়ের সামনে থেকে কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক মো. মুনির হোসেনের নেতৃতে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে পৌর শহর ঘুরতে গেলে পুলিশের বাঁধার মুখে পড়ে। পরে দলীয় কার্যালয়ের মূল ফটকে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মো. শাহজাদা মিয়ার সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এসময় দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন উর্ধ্বগতির প্রতিবাদ, খালেদা জিয়ার মুক্তি ও নিরপেক্ষ তত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেয়া হয়। বিক্ষোভ মিছিল শেষে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক মো. মুনির হোসেন। একই দাবিতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব ওলিউর রহমান, যুগ্ম আহ্বায়ক আনিসুর রহমান, আপেল মাহমুদ ফিরোজ, পৌর বিএনপির আহ্বায়ক হুমায়ন কবির প্রমূখ। তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিএনপি এক নেতা বলেন, বাউফল বিএনপি দুইভাগে বিভক্ত। সাবেক সাংসদ শহিদুল আলম তালুকদারসহ বিএনপির একটি অংশকে কোনঠাসা করে রাখা হচ্ছে। যারা নেতৃত্বে আছেন তারা আওয়ামী লীগের সাথে ব্যালেঞ্চ করে দলীয় কর্মসূচি পালন করছে। যার কারণে আন্দোলন-সংগ্রাম বেগবান হচ্ছেনা। কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা মুনির হোসেন বলেন, বাউফলে বিএনপির সকল নেতা-কর্মীরা ঐক্যবদ্ধ রয়েছেন। আমাদের কোন দলীয় কোন্দল নেই।

অপরদিকে কেন্দ্রীয় যুবলীগের পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসাবে বিএনপি- জামায়াতের জনবিচ্ছিন্ন কর্মকান্ড, দেশকে অস্থিতিশীল করার পায়তারা রুখে দিতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে বাউফল উপজেলা যুবলীগ। বেলা ১১টার দিকে দলীয় কার্যালয় জনতা ভবন থেকে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. শাহজাহান সিরাজ ও সাধারন সম্পাদক এস.এম. ফয়সাল আহম্মেদ মনির মোল্লার নেতৃত্বে ৫ শতাধিক নেতাকর্মীর নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল বের করে পৌর শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে জনতা ভবনে এসে সমাবেশ করে। উপজেলা যুবলীগ সাধারন সম্পাদক ও কালাইয়া ইউপি চেয়ারম্যান এস.এম. ফয়সাল আহম্মেদ বলেন, বাংলাদেশ উন্নয়নের পথে যখন এগিয়ে যাচ্ছে তখন জনবিচ্ছিন্ন দল বিএনপি-জামায়াত দেশকে অস্থিতিশীল করার পায়তারা করছে। তাদের ষড়যন্ত্র রুখে দিতে যুবলীগ রাজপথে আছে এবং থাকবে। এদিকে বিএনপি ও যুবলীগের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি থাকায় বাউফল পৌর শহরে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

Previous articleদেশের ৬৫ ভাগ তরুণী যৌন হয়রানির শিকার
Next articleযুদ্ধ করতে দেশে ফিরেছেন ৬৬ হাজারের বেশি ইউক্রেনীয়
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।