বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার বাজার ডাকের টাকা আদায়ের নামে চাঁদাবাজদের স্বেচ্ছাচারিতায় অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে বসুরহাট মুখি জনগণ।

বসুরহাট পৌরসভার প্রবেশ পথে করালিয়া বাইপাস সড়কের সাবেক সিরাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে এমন ঘটনা ঘটছে। বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আব্দুল কাদের মির্জা ব্যক্তিগত সফরে নিউইর্য়ক থাকায় এ চাঁদাবাজদের দৌরাত্ন বেড়েছে বহুগুণ।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার ১নম্বর ওয়ার্ডের মহাজন দীঘি এলাকার সাগর ও তুষার নামের দুই যুবক এখানে পৌরসভার নিয়মের বাহিরে অহরহ বিভিন্ন যানবাহনে চাঁদাবাজি চালাচ্ছে। ভুক্তভোগী একাধিক ব্যক্তি জানান, কবিরহাট টু বসুরহাট সড়কের করালিয়া অংশে ব্যাটারি চালিত রিকশা, মোটরসাইকেল যোগে দুধ,চাল নিতে ও তাদেরকে চাঁদা দেওয়া লাগে। এর ব্যতয় ঘটলে তারা সাধারণ মানুষের সাথে চালাচ্ছে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড। ভয়ে এসব বিষয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস পায়না। স্থানীয়দের অভিযোগ তুষার,সাগর সহ একাধিক যুবক পৌরসভার বাজার ডাকের আইন ভঙ্গ করে এখানে ত্রাসের রাজত্ব চালাচ্ছে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে বাজার ডাকের দায়িত্বে থাকা মো.ওয়াসিম জানান,ব্যাটারি চালিত রিকশা ও মোটরসাইকেল আরোহীদের থেকে টাকা নেওয়া হয় বলে তাঁর জানা নেই।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বসুরহাট পৌরসভার ৩নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র নুর হোসাইন বলেন, ওখান থেকে বসুরহাট পৌরসভার বাজার ডাকের টাকা নেওয়া হয়। তবে ব্যাটারি চালিত রিকশা ও দুধ,চালবাহী মোটরসাইকেল থেকে টাকা নেওয়া হয় বলে তাঁর জানা নেই। তবে এ বিষয়ে পৌরসভার কর্মকর্তা করিমুল হক সার্থী ভালো জানে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

Previous articleআড়িয়াল বিলের সোনালী রংয়ের মিষ্টি কুমড়া, একেকটির ওজন ৩০-৯০ কেজি
Next articleসোনারগাঁও উপজেলার চেঙ্গাইনে ডাকাতি, আহত ৩
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।