পাভেল মিয়া: কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার মাদাইখাল কালী মন্দিরে পূজায় আসা মহিলাদের গলার অলংকার ছিনতাইয়ের সময় দুই নারী ছিনতাইকারীকে আটক করে পুলিশ দিয়েছেন পূজারীরা। শনিবার বিকেলে এই ঘটনা ঘটে।

আটকৃতরা হলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাছিমনগর এলাকার বাসিন্দা সামসুদ্দিনের স্ত্রী আছমা বেগম (৪৫) এবং সুন্দর আলীর স্ত্রী রেশমা খাতুন (২২)। তারা শাঁখা-সিদুঁর পড়ে সনাতন ধর্মাবলম্বী নারীর বেশে মন্দির প্রবেশ করে। সেখানে সুযোগ বুঝে নারী পূজারিদের গলা থেকে সোনার চেইন ছিনতাইয়ের করেন বলে অভিযোগ করেন পূজারীরা।

পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি কৃষ্ণ চন্দ্র সরকার বলেন, শনিবার পূজার অষ্টমি ও শেষ দিনে মন্দির ভক্তের সমাগম ঘটে অনেক বেশি। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে তারা ছদ্মবেশে পূজারীদের ভীরে ঢুকে ছিনতাই করছিলো ছিনতাইকারীরা।

দুপুর মন্দিরের ভেতর পুজা-অর্চনা এবং বাইর পশু বলিদান চলছিল। এসময় কালীরপায়ে প্রণাম ও অর্ঘ্য প্রদানে দূর দূরান্ত থেকে আসা পুরুষ ও মহিলা ভক্তরা দুই ভাগে বিভক্ত হয় এক পাশ দিয়ে মন্দিরে প্রবেশ করে অপরদিক দিয়ে বের হবার সময় অনেক ভীর হয়। হঠাৎই সেখান থেকে কয়েকজন মহিলা ভক্ত তাদের স্বর্ণালংকার হারিয়ে কান্না শুরু করেন।

মুহুর্তেই স্বর্ণালংকার হারানোর খবর ছড়িয়ে পড়ে। কিছুক্ষণ পর আবারও দুইজন মহিলা ভক্তের গলা থেকে স্বর্ণালংকার ছিনতাইয়ের সময় তারা দুইজন নারী ছিনতাইকারীকে ধরে ফেলেন। আটকৃতদের জনরোষ থেকে বাঁচাতে তাদেরকে কমিটির হেফাজতে নেয়া হয়। পরে নাগেশ্বরী থানা পুলিশের কাছে তাদের সোপর্দ করা হয়।

নাগেশ্বরী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নবীউল হাসান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Previous articleএকদিকে নদীতে পানি বৃদ্ধি অন্যদিকে শিলাবৃষ্টির আঘাত, দিশেহারা কৃষক
Next articleখালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় পাঁচবিবিতে বিএনপির ইফতার ও দোয়া মাহফিল
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।