বাংলাদেশ প্রতিবেদক: পটুয়াখালীর গলাচিপায় চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে ১৫ বছরের এক কিশোরীকে পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর সহায়তায় দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের সুহুরী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্র জানায়, উপজেলার গজালিয়া ইউনিয়নের আব্দুর রহমানের ১৫ বছরের মেয়েকে পাশের ইউনিয়নের ডাকুয়া ইউনিয়নের আটখালী গ্রামের রিয়াজ হাওলাদার (৩০) ও রাব্বি গাজী (২৭) চাকরি দেয়ার কথা বলে ঢাকায় নিয়ে যায়। ঢাকায় গিয়ে ওই কিশোরী চাকরি না করার সিদ্ধান্ত নিয়ে আবার পটুয়াখালীর লঞ্চযোগে বুধবার ভোর রাতে পটুয়াখালী পৌঁছে। পটুয়াখালী থেকে রিয়াজ তার স্ত্রী পরিচয় দিয়ে গোলাখালী ইউনিয়নের চর সুহুরীর ইব্রাহিম দফাদারের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে রিয়াজ ও রাব্বি পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। ওই কিশোরী ইব্রাহিম দফাদারের পাশের বাড়ি নিমাই দাসের বাড়ি লোকদের জানালে এলাকাবাসী ওই দুই যুবককে আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

গলাচিপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম আর শওকত আনোয়ার জানান, কিশোরীকে উদ্ধার করে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ওই কিশোরীর বাবা আব্দুর রহমান ওই দুই যুবকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

Previous articleজয়পুরহাটে বৃষ্টি কামনা করে নামাজ ও মোনাজাত
Next articleদেশে করোনায় আরো ৬ জনের মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।