বাংলাদেশ প্রতিবেদক: কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে এক মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষক মোতালেব হোসেনের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (ভারপ্রাপ্ত) মিজানুর রহমানের আদালতে হাজির হলে তার জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণ করেন।

এর আগে ওই শিক্ষক হাইকোর্টে জামিন আবেদন করলে হাইকোর্ট বিভাগ তার জামিনের আবেদন বিবেচনা না করে পরবর্তী ৬ সপ্তাহের মধ্যে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সহকারী শিক্ষক মোতালেব হোসেন কর্মস্থলে যাওয়া-আসার পথে উপজেলার দাখিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণির ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। ওই শিক্ষক প্রায়ই ছাত্রীর বাড়িতে যাওয়া-আসা করতেন। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে ছাত্রী মোতালেব হোসেনকে বিয়ের চাপ দিতে থাকে। পরে স্থানীয় লোকজন গত ২৪ আগস্ট বুধবার ছাত্রীর বাড়িতে গভীর রাতে সালিশ বৈঠকে বসেন। কিন্তু বৈঠকে ছাত্রী ন্যায্য অধিকার না পাওয়ায় তার পিতা পরদিন রাতে থানায় মামলা দায়ের করেন।

পরবর্তীতে তিনি জামিনের জন্য হাইকোর্ট বিভাগে জামিনের আবেদন করলে তা বিবেচনা না করে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন হাইকোর্ট বিভাগ।

ধর্ষক শিক্ষক মোতালেব হোসেন গোরকমণ্ডল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। তিনি উপজেলার নাওডাঙ্গা গ্রামের দুই সন্তানের জনক মৃত চাঁদ মিয়ার ছেলে।

কুড়িগ্রাম চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের জিআরও আবুল কালাম আজাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ফুলবাড়ী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আকবর কবীর বলেন, বিষয়টি শুনেছি। পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য লিখিতভাবে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

Previous article‘স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত শতকরা ৭০ ভাগ নারী মৃত্যুবরণ করছেন’
Next articleঈশ্বরদীর মুলাডুলি আড়তে দৈনিক কোটি টাকার মাছ বিক্রি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।