বাংলাদেশ প্রতিবেদক: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় নিজ ইউনিয়নে আবাসনের দাবীতে মানববন্ধন করেছেন ২০ পরিবার। বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) সকাল ১১ টায় উপজেলার ধানখালী ইউনিয়নের উত্তর নিশান বাড়িয়া গ্রামে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষ কয়লা সংরক্ষনের কোল্ড টার্মিনাল নির্মানের জন্য ভূমি অধিগ্রহন করেন। এতে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোকে পার্শ্ববর্তী লতাচাপলি ইউনিয়নে আবাসন দেয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। পরিবারের সদস্যরা তাদের নিজ ইউনিয়ন ধানখালীতে আবাসন ব্যবস্থার দাবি করেন। এসময় তারা বলেন, সরকারের উন্নয়নের সাথে আমরা একমত রয়েছি। আমাদের বাব দাদার পৈত্রিক ভিটে বাড়ি ছেড়ে দিয়েছি। কিন্তু আমরা যাতে সবাই একসাথে এ ইউনিয়নেই থাকতে পারি সে ব্যবস্থা করার জোড় দাবি জানাচ্ছি।

ধানখালী ইউনিয়নে একটি আবাসন রয়েছে আমাদের সেখানে ঘর বরাদ্ধ দেওয়ার অনুরোধ করেন। ক্ষতিগ্রস্থ বাসিন্দা ৮০ বছরের বৃদ্ধা আনোয়ারা বেগম বলেন, জমি-জমা,বাড়ি-ঘর সব নদীতে ভেঙ্গে গেছে এখন ব্যারাকের দেওয়া এই জায়গাটুকুও পায়রা বন্দর নিয়ে গেছে। সারাটাজীবন এই পরিবার গুলোর সাথে কাটিয়েছি বাকি সময়টা তাদের সাথে কাটাতে চাই। আমাদেরকে এই ইউনিয়নে আবাসন দেওয়ার অনুরোধ করি সরকারের কাছে। ভুক্তভোগী শিউলি, শিল্পি ও হনুফা বেগমসহ আরো অনেকে বলেন, আমাদের সহায়-সম্ভল সবই সরকার নিয়ে গেছে। এখন নিজ ইউনিয়নের পরিচয়টুকু থেকেও বঞ্চিত করার কথা শুনছি। সরকারের কাছে একটাই দাবী যেখানে বাব-দাদার কবর রয়েছে অন্তত সেই এলাকায় থাকার ব্যবস্থাটা করে দিক।

ভুক্তভোগী হাবলু প্যাদা বলেন, ২০০৭ সালের সিডরে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার হিসাবে জাপানী ব্যারাক হাউজ আমাদের এখানে বসবাসের ব্যবস্থা করে দেন। সরকারের উন্নয়নের জন্য আমরা তা ছেড়ে দিচ্ছি। কিন্তু কোন একটি কুচক্রি মহল আমাদের নিজ ইউনিয়নের অধিকারটুকু ছিনিয়ে নিতে চাচ্ছে। তারা মহিপুর থানাধীন লতা চাপলী ইউনিয়নের ধূলাচর এলাকায় নির্মানাধিন আবাসন প্রকল্পে ঘর বরাদ্ধ দেয়ার জন্য জোর পায়তারা চালাচ্ছে। আমরা ধানখালী ইউনিয়নের বাসিন্দা এখানেই থাকতে চাই।

স্থানীয় বাসিন্দা গাজী রাইসুল ইসলাম রাজীব বলেন,অসহায় এই পরিবারগুলো জন্ম থেকে এখানে রয়েছে। তারা সুখে দুঃখে একসাথে বসবাস করে অসছে। তাদের এ ইউনিয়নে আবাসন ব্যবস্থা করে দিলে ভালো হয়। এবিষয়ে ধানখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো.রিয়াজ তালুকদার বলেন, ধানখালীতে পায়রা বন্দরের একটি আবাসন রয়েছে। তাদের সেখানে ঘর বরাদ্ধ দিয়ে এ ইউনিয়নেই রাখা যায়। পটুয়াখালী জেলা প্রসাশক মো. কামাল হোসেন বলেন,বিষয়টি আমরা দেখব।

Previous articleঈশ্বরদীর মুলাডুলি আড়তে দৈনিক কোটি টাকার মাছ বিক্রি
Next articleভোজ্যতেল নিয়ে কারসাজি করা অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা: বাণিজ্যমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।