শনিবার, জুলাই ১৩, ২০২৪
Homeসারাবাংলাসুদ কারবারি’র অত্যাচারে গৃহবধুর আত্মহত্যা!

সুদ কারবারি’র অত্যাচারে গৃহবধুর আত্মহত্যা!

মাসুদ রানা রাব্বানী : রাজশাহী মহানগরীতে সুদ কারবারির অত্যাচারে পারভিন বেগম (৪০) নামের গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
সোমবার (২৯ আগস্ট) সকাল ১১ টায় মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার কেদুর মোড় নদীরধার এলাকার নিজ বাড়ির শয়ন কক্ষে ডামফিক্স পান করে আত্মহত্যা করেন তিনি।
মৃত পারভিন বেগম ওই এলাকার মোঃ হেমায়েত হোসেনের স্ত্রী। তিনি ২ কণ্যার জননী।
মৃত গৃহবধূর স্বামী মোঃ হেমায়েত হোসেন জানায়, আমার স্ত্রী বিপদে পড়ে কেদুরমোড় এলাকার সুদ কারবারি মাজেরুন ও রুবিনার কাছে সামান্য কিছু টাকা নেয়। সেই টাকা চড়া সুদে সুদে ১লক্ষ টাকা হয়ে যায়। পরে সুদ ২লক্ষ টাকাতে পৌঁছায়। বেশকিছু দিন থেকেই মাজহারুল ও রুবিনা সুদের টাকার জন্য আমাদের বাড়ির ওপর এসে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং আমার স্ত্রীর কাছে থেকে সুদের এক লক্ষ টাকা চায়। টাকা দিতে না পারায় তারা আমার স্ত্রীকে দিয়ে জোরপূর্বক কিস্তিতে টাকা উঠিয়ে তাদের টাকা পরিশোধ করার জন্য চাপ দেয়।
তিনি আরও জানায়, সোমবার (২৮ আগস্ট) ৫০ হাজার টাকা কিস্তিতে উঠায় আমার স্ত্রী। সেই খবর পেয়ে মাজেরুন ও রুবিনা সকালে আমার বাড়িতে হামলা করে ৫০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এতে বাধা দিলে আমার স্ত্রীকে চুলের মুঠি ধরে ব্যাপক মারধর ও নির্যাতন চালায় সুদ কারবারি মাজেরুন ও রুবিনা।
মারধরের শিকার হয়ে লজ্জায় ও অপমানে গৃহবধূ পারভিন বেগম সোমবার সকাল ১১টায় নিজ বাড়ির টয়লেটে ডামফিক্স খেয়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। এসময় পরিবারে লোকজন জানতে পেরে তাকে দ্রুত রামেক হাসপাতালে পাঠায়। এদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় গৃহবধূর মৃত্যু হয়।
নাম প্রকাশ না করা শর্তে একাধিক স্থানীয়রা জানায়, সুদ কারবরি মাজেরুন ও তার সহযোগী রুবিনা কেদুরমোড় এলাকায় দীর্ঘদিন থেকে চড়া সুদের কারবার চালিয়ে আসছে। সুদকারবারী মাজেরুনের সব-সময় নিশানায় থাকে এলাকার নিরিহ নারীরা। চড়া সুদে নিরহ মানুষদের টাকা ধার দিয়ে, তাদের মানসিক ও শারারিক ভাবে নির্যাতন চালায়। এর আগেও আরোও ২জন নারীর সাথে এমন নির্যাতন চালিয়েছে এই দুই সুদ কারবারি।
তারা আরও জানায়, মঙ্গলবার বাদ মাগরিব গৃহবধূর লাশ দাফনের জন্য টিকাপাড়া কবরস্থানে নিয়ে যাওয়ার পর সুদ ও মাদক কারবারি রুবিনা, শম্পা, ববি ও সোনা ৪জন নারী মৃত গৃহবধূর বাড়িতে হামলা চালিয়েছে। এ সময় তারা মৃত্যের বড় বোন নার্গিস-সহ আরও ২/৩ জনকে পিটিয়েছে।
এ ব্যপারে বোয়ালিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ সোহরাওয়ার্দী হোসেন বলেন, ডামফিক্স পান করে এক গৃহবধূ’র মৃত্যু হয়েছে। এ ব্যপারে
বোয়ালিয়া মডেল থানায় একটি (ইইডি) অপমৃত্যুর মামলা রুজু হয়েছে। সুদ কারবারিদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে আইগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান ওসি।
রাজশাহীতে বাগমারায় বাসরঘরে স্বামীকে হত্যা করলো নববধূ
মাসুদ রানা রাব্বানী, রাজশাহী: রাজশাহীর বাগমারায় বাসরঘরে স্বামী আব্দুর রাজ্জাক নামের এক ব্যক্তিকে বালিশচাপা দিয়ে হত্যা করেছে নববধূ। সোমবার (২৮ আগস্ট) রাতে উপজেলার বাসুপাড়া ইউনিয়নের সাঁইপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
গ্রেফতারের পর পুলিশের কাছে স্বামীকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে ওই নববধূ শাপলা খাতুন।
জানা গেছে, মোহনপুর উপজেলার ধুরইল গ্রামের শুকুর আলীর মেয়ে শাপলা খাতুনের সঙ্গে বাগমারার বাসুপাড়া ইউনিয়নের সাঁইপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে আব্দুর রাজ্জাকের দীর্ঘদিন ধরে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। সেই প্রেমের সূত্র ধরে উভয় পরিবারের সম্মতিতে সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের বিয়ে হয়। এদিন রাত ১১টার দিকে বাসরঘরে নববিবাহিতা স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে নববধূ শাপলা খাতুন স্বামী আব্দুর রাজ্জাককে বালিশচাপা দিয়ে হত্যা করেন। খবর পেয়ে গ্রামের লোকজন শাপলা খাতুনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।
এ ব্যপারে জানতে চাইলে বাগমারা থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন, নিহত আব্দুর রাজ্জাকের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।
মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের লাশ তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ব্যপারে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। একই দিনে গ্রেফতার নববধূ শাপলা খাতুনকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান ওসি।

 

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerkagoj.com.bd/
Ajker Bangladesh Online Newspaper, We serve complete truth to our readers, Our hands are not obstructed, we can say & open our eyes. County news, Breaking news, National news, bangladeshi news, International news & reporting. 24 hours update.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments