বাংলাদেশ প্রতিবেদক: দেশে গতবারের তুলনায় করোনা পরিস্থিতির দ্রুত অবনতি হচ্ছে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, গতবারের তুলনায় রোগীর অবস্থার অবনতি হওয়ার হার এবার বেশি। গত বছর ৬ থেকে ৭ দিন পর করোনা রোগীর পরিস্থিতি খারাপ হলেও এখন তা দু-একদিনের মধ্যেই হচ্ছে। এ অবস্থায় হাসপাতালে বাড়ছে শয্যা সংকট। জনবল সংকটে চাপ সামলাতে বেগ পেতে হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) সকাল ১০টা। কুর্মিটোলা জেনারেল হালপাতেলে রোগীর সংখ্যা ৩৯৮ জন। ঠিক আধঘণ্টা পরেই এ সংখ্যা দাঁড়ায় ৪১৩ তে। ধারণক্ষমতা ২৫০ হলেও প্রতিদিন ফিরে যাচ্ছেন অসংখ্য রোগী। এ ছাড়া বেড না পেয়ে জরুরি বিভাগের সামনেই চিকিৎসা নিতে হচ্ছে অনেকে। চিকিৎসকের পরামর্শে আইসিউয়ের জন্য রাতভর অপেক্ষা ছিল পঞ্চাষোর্ধ্ব এক নারী। পরে হাসপাতালে বেড না পেয়ে ব্যর্থ হয়ে তাকে নিয়ে অন্য হাসপাতালে যান স্বজনরা। দ্রুত ঘটছে এমন পরিস্থিতি।

সময় সংবাদকে কুর্মিটোলা হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেলারেল জামিল আহমেদ বলেন, গতবছরের তুলনায় রোগীর অবনতি হওয়ার হার এবার একটু বেশি। পরিস্থিতি দ্রুত খারাপের দিকে যাওয়ায় জনবল সংকটে চাপ সামলাতে বেগ পেতে হচ্ছে তাদের।

এদিকে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের নির্দেশে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল, লালকুঠি হাসপাতাল, ঢাকা মহানগর হাসপাতাল, ডিএনসিসি করোনা আইসোলেশন সেন্টার ও সরকারি কর্মচারী হাসপাতালকে আবারো ডেডিকেটেড হাসপাতাল করা হয়েছে।

এদিকে বিভিন্ন টিকা কেন্দ্রে নিবন্ধিতদের টিকা নিতে ভিড় লক্ষ করা গেছে।

Previous articleঅ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা রফতানি বন্ধের খবর সরকারের হাতে নেই: স্বাস্থ্য সচিব
Next articleগত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩ হাজার ৫৮৭
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।