বাংলাদেশ ডেস্ক: ইয়েমেনে নিজেদের ভাড়াটে সেনাদের ওপর বোমা বর্ষণ করেছে সৌদি আরব। শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) ভোরে ভুল করে ইয়েমেনের মায়ারিব প্রদেশের রাফওয়ান এলাকায় আব্দরাব্বু মানসুর হাদির নেতৃত্বে পরিচালিত ভাড়াটে সেনাদের একটি অবস্থানে উপর্যুপরি বোমা বর্ষণ করে সৌদির জঙ্গি বিমানগুলো। এতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এবং অনেক সেনা হতাহত হয়েছে।

আব্দরাব্বু মানসুর হাদি ইয়েমেনের সাবেক প্রেসিডেন্ট। সৌদি জোটের সহায়তায় ইয়েমেনের একটি পক্ষকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি।

পার্স টুডের খবরে বলা হয়েছে, মানসুর হাদির পক্ষে নিজ দেশের কিছু যোদ্ধা যেমন আছে তেমনটি বিভিন্ন দেশ থেকে আনা ভাড়াটে সেনাও আছে।

সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, সুদানসহ কয়েকটি দেশ থেকে বেশ কিছু সাবেক সেনা এবং শিশু-কিশোরকে অর্থের বিনিময়ে ইয়েমেনে এনেছে সৌদি আরব। এসব অস্ত্রধারীকে এমন শর্তে ইয়েমেনে আনা হয়েছে যে, মৃত্যুর পর কোনো জবাবদিহি করতে হচ্ছে না তাদের।

এর আগেও সৌদি বাহিনী ভুলক্রমে নিজের ভাড়াটে সেনাদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। লেবানন থেকে সম্প্রচারিত আল-মায়াদিন টিভি চ্যানেল জানিয়েছে, মায়ারিব প্রদেশে সৌদি সমর্থিত গোষ্ঠীর ঘাঁটিতে ব্যাপক বিস্ফোরণ ঘটেছে।

২০১৫ সালের মার্চ থেকে আব্দরাব্বু মানসুর হাদিকে ক্ষমতায় ফিরিয়ে আনতে দরিদ্র প্রতিবেশী দেশ ইয়েমেনে ব্যাপক হামলা চালিয়ে আসছে। কিন্তু সেখানে তাদের প্রধান প্রতিপক্ষ হাউথি বিদ্রোহীদের কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রণে আনতে পারছে না; বরং দিন দিন সশস্ত্র গোষ্ঠীটির প্রভাব বেড়েই চলেছে। সাম্প্রতিক সময়ে সৌদি আরবের বড় শহরগুলোতেও ড্রোন এবং মিসাইল হামলা চালিয়েছে হাউথিরা।