বাংলাদেশ ডেস্ক: জুয়া আর মদে মত্ত স্বামী সব খুইয়ে শেষ পর্যন্ত বন্ধুদের কাছে বাজি রাখলেন নিজের স্ত্রীকে। সেই খেলাতেও হেরে গেলেন তিনি। শেষ পর্যন্ত স্ত্রীকে তুলে দিতে হল বন্ধুদের হাতে। সবার সামনেই ওই নারীকে ধর্ষণ করল বন্ধুরা। ভারতের বিহার রাজ্যে অক্টোবর মাসের এ ঘটনা ঘটে।

সম্প্রতি বিষয়টি প্রকাশ্যে এলে রীতিমতো তোলপাড় শুরু হয়েছে বলে আনন্দবাজারের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, জুয়া ও মদে আসক্ত ব্যক্তিটি বিহারের হাসানগঞ্জের বাসিন্দা। সেদিন জুয়ায় হেরে তার স্ত্রীকে বন্ধুদের হাতে তুলে দেওয়ার পর বন্ধুরা ওই মহিলাকে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করে। তারপর যখন ওই মহিলা বাড়ি থেকে যেতে অস্বীকার করেন, তখন তার উপর অ্যাসিড হামলা করা হয় বলেও অভিযোগ উঠে।

এরপর গত ১৩ ডিসেম্বর বাড়ি থেকে পালিয়ে নিজের বাবার বাড়ি আসেন ওই নারী। তারপর একজন সমাজকর্মীর কাছে পুরো বিষয়টি খুলে বলেন। তারপর পুলিশের কাছে অভিযোগ করা হলে পুলিশ অভিযুক্ত স্বামীকে গ্রেফতার করে।

আনন্দবাজারের প্রতিবেদন অনুযায়ী, এই দম্পতির প্রায় ১০ বছরের বিবাহিত জীবন। ওই নারীর অভিযোগ, তিনি সন্তান ধারণে অক্ষম হওয়ায় দীর্ঘদিন ধরেই স্বামী তাকে শারীরিকভাবে অত্যাচার করতেন। ২৮ অক্টোবর তার স্বামী জুয়ার খেলোয়াড়দের সঙ্গে তাকে একটা ঘরে আটকে করে দেন। তারপর তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়।

ভাগলপুরের পুলিশ সুপার জানিয়েছে, এ ঘটনায় দ্রুত চার্জশিট দেয়া হবে।