বাংলাদেশ ডেস্ক: হরমুজ প্রণালীতে মার্কিন জাহাজ ঘেরাও করায় ইরানি নৌবহরের দিকে ৩০ দফা গুলি ছোড়া হয়েছে। এক মাসেরও কম সময়ে দ্বিতীয়বার মুখোমুখি হল এই দুই দেশ।

পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবি সোমবার (১০ মে) বলেন, ‘ইরানের রিভল্যুশনারি গার্ডের ১৩টি সশস্ত্র স্পিডবোট ছিল বহরে। মার্কিন দুটি জাহাজ, ফায়ারবোটের ৪৬০ ফুট দূরত্বে চলে এসেছিল সেগুলো।

জাহাজগুলো মূলত মিসাইলবাহী সাবমেরিন ইউএসএস জর্জিয়ার পাহারায় নিয়োজিত ছিল। এসময় সংকেত পাঠিয়ে তাদের কয়েকবার সতর্ক করা হলেও সেগুলো নিরাপদ সীমানা অতিক্রম করে। তখন তাদের হুঁশিয়ার করতে গুলি ছোড়া হয়।’

অন্যদিকে, এ বিষয়ে ইরান থেকে তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি বলে বিবিসি জানিয়েছে। তবে ইরানের দাবি মধ্যপ্রাচ্যের কৌশলগত জলপথ হরমুজ প্রণালী ও পারস্য উপসাগরের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ তাদের হাতে রয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন উত্তেজনার সময় প্রণালীটি বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দেয় ইরান।

হরমুজ প্রণালীর মাধ্যমে মধ্যপ্রাচ্য থেকে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে তেল রফতানি করা হয়। এ সমুদ্রপথটি ব্যবহার করে মধ্যপ্রাচ্য থেকে তেল যায় এশিয়া, ইউরোপ, উত্তর আমেরিকাসহ অন্যান্য দেশে। হরমুজ প্রণালী মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে এ দেশগুলো এবং এর বাইরে তেল সরবরাহে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

Previous articleদেশে আরও কমেছে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত
Next articleঈদের ছুটি সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে: প্রতিমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।