বাংলাদেশ ডেস্ক: ভারতে ধর্মীয় মেরুকরণের কথা নিয়ে চলছে বিস্তর, অনেকে বলছেন বিশেষত রাজনৈতিক দলগুলোর প্রচ্ছন্ন উদ্দীপনায় তা মাথা চাড়া দিচ্ছে। যদিও ভারতীয় সংবিধানে বরাবরই মোটা হরফে জ্বলজ্বল করে ‘ধর্মনিরপেক্ষতা’র কথা, সম্প্রীতির কথা। এবার পশ্চিমবঙ্গে সেই সম্প্রীতির চিত্র এক অন্য মাত্রা নিল। মাদরাসা হাইস্কুলে প্রধানের দায়িত্বে হিন্দু নারীরা।

পশ্চিমবঙ্গের ইতিহাসে এই নজির সম্প্রীতির এক অন্য চিত্র তুলে ধরল বলেই মত শিক্ষা মহলের। মাদরাসা স্কুলে প্রধান শিক্ষকার দায়িত্বে অমুসলিম, কথাটা তেমন প্রচলিত ছিল না। কোনো মুসলিম ব্যক্তিই দায়িত্ব পেয়েছেন এই পদের, প্রচলিত এই মতের ভাঙন ঘটল।

দীপান্বিতা পাল, দেবশ্রী কর্মকার, টুম্পা হালদার, অনিতা তন্তুবায়- এই চার নারীর হাত ধরেই ভাঙছে মানুষের মনে গড়ে ওঠা মাদরাসা নিয়ে প্রচলিত ধারণা।

পাণ্ডুয়ার সুলতানিয়া হাই মাদরাসায় এবার প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে দায়িত্ব নিচ্ছেন চুঁচুড়ার দীপান্বিতা পাল। বহুদিন মাদরাসায় শিক্ষিকা হিসেবে পড়ুয়াদের মধ্যে শিক্ষার আলো বিতরণ করেছেন তিনি। তবে এবার জীববিদ্যার শিক্ষিকা দীপান্বিতা পালন করবেন মাদরাসা হাই-এর প্রধানের ভূমিকা।

অন্যদিকে, অনিতা তন্তুবায় দায়িত্ব নিচ্ছেন পূর্ব বর্ধমানের বনদুটিয়া হাই মাদরাসার। টুম্পা হালদার পাচ্ছেন পুরুলিয়ার ফতেডাঙ্গা হাই মাদরাসার প্রধান শিক্ষিকার দায়িত্ব। আর দেবশ্রী কর্মকার যাচ্ছেন উত্তর দিনাজপুরের এমএনআই হাই মাদরাসার প্রধান শিক্ষিকা হয়ে।
সূত্র : ভয়েচ অফ আমেরিকা

Previous articleআ’লীগ নেতা জহিরুল হত্যা: ১৩ জনের ফাঁসি
Next articleকেশবপুরে ৫ম ধাপে নির্বাচন ৫ জানুয়ারী, ১১টি ইউনিয়নে ৫৬৩ জন প্রার্থী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।