বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নির্বাচন কমিশনের (ইসি) বিরুদ্ধে আবারো অভিযোগ জানিয়ে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদকে আরও একটি চিঠি দিয়েছেন দেশের ৪২ জন বিশিষ্ট নাগরিক। এবারের চিঠিতে আগের চিঠির সাথে অতিরিক্ত কিছু তথ্য যোগ করা হয়েছে। এছাড়া রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তারা দেখা করতে চান বলেও চিঠিতে জানান হয়েছে।

সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী শাহদীন মালিক বিশিষ্ট নাগরিকদের পক্ষে দ্বিতীয় চিঠিটি রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠিয়েছেন।

এর আগে গত বছরের ১৪ ডিসেম্বর প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) ও নির্বাচন কমিশনারদের বিরুদ্ধে সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল গঠনে রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন করেন এই নাগরিকেরা। সেখানে দুদকের আর্থিক অনিয়ম, দুর্নীতি ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট গুরুতর অসদাচরণের অভিযোগ তোলা হয়।

১৭ জানুয়ারি রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্ত গ্রহণে সহায়তা করার জন্য প্রথম চিঠির মাধ্যমে করা আবেদনের সংযুক্তি হিসেবে এ চিঠি পাঠানো হয়।

চিঠির সঙ্গে নির্বাচন কমিশনের প্রশিক্ষণের জন্য বরাদ্দ করা অর্থ–সম্পর্কিত অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে বৈশাখী টেলিভিশনের সাত পর্বের একটি ধারাবাহিক প্রতিবেদনের কপি সংযোজন করা হয়।

আরও সংযোজন করা হয় একই বিষয়ে মহা-হিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রকের (সিএজি) দফতর কর্তৃক উত্থাপিত অডিট আপত্তি নিয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত কয়েকটি প্রতিবেদনের কপি।

এছাড়া চিঠিতে রাষ্ট্রপতির উদ্দেশে তারা বলেন, আমাদের অভিযোগের বিষয়ে সামনাসামনি ভাবে অবগত করার জন্য আপনার সুবিধামতো সময়ে সাক্ষাতের অনুরোধের বিষয়ে আমরা আপনার সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় আছি।