বাংলাদেশ প্রতিবেদক: কঠোর লকডাউনের মধ্যে শিল্প কারখানা খুলে দেওয়ায় কর্মস্থলে ফেরার জন্য ভোলার লঞ্চঘাটগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করেই হাজার হাজার মানুষের ঢল দেখা গেছে। ধারণক্ষমতার কয়েকগুণ বেশি যাত্রী নেয়া হচ্ছে লঞ্চগুলোতে। যাত্রীদের অভিযোগ এই সুযোগে দ্বিগুণ ভাড়া নিচ্ছে লঞ্চ কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয়রা জানায়, রবিবার সকাল ৮টা থেকে যাত্রী নিয়ে ভোলার ইলিশা লঞ্চ ঘাট এবং চরফ্যাশনের ঘোষেরহাট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেছে ৫টি লঞ্চ। এছাড়াও ভোলার ইলিশা লঞ্চ ঘাট থেকে লক্ষ্মীপুরের মজু চৌধুরী ঘাটের উদ্দেশ্য ২টি সি ট্রাক ও ২টি লঞ্চ ছেড়ে যায়।

গার্মেন্টস খোলা এবং লঞ্চ চলাচল শুরু হওয়ার খবরে ভোলা থেকে ঢাকা ও চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন স্থানে যাওয়ার জন্য যাত্রীদের ঢল নেমেছে। এই সুযোগে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে স্বাস্ব্যবিধি উপেক্ষা করেই এসব লঞ্চ গন্তব্যে ছেড়ে যায়। এতে একদিকে যেমন করোনা সংক্রামণের ঝুঁকি অন্যদিকে চরম বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে যাত্রীদের।

ঢাকামুখী যাত্রী রফিক ও জাভেদ জানান, লঞ্চে দাঁড়ানোর মতো জায়গা নেই। অথচ লঞ্চ কর্তৃপক্ষ ২৫০ টাকার ভাড়া ৪০০ টাকা নিচ্ছে। অধিকাংশ যাত্রী আগের দিন রাতে এসে লঞ্চে অবস্থান নিয়েছেন। ঢাকাগামী লঞ্চের যাত্রীরা জানান রাত ২টায় এসেও দেখেন লঞ্চে জায়গা পাওয়া যাচ্ছে না।

ভোলা-ঢাকা রুটের কর্ণফুলী-১০ লঞ্চের ম্যানেজার আলাউদ্দিন জানান, বিআইডব্লিউটিএর নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিটি লঞ্চে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করে লঞ্চ ছেড়ে গেছে।

Previous articleগৃহকর্মী নির্যাতন ও মাদক রাখার অভিযোগে চিত্রনায়িকা একাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ
Next articleসরকারের ভুল নীতির কারণে দেশে করোনায় মৃত্যু বাড়ছে: জাফরুল্লাহ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।