পুলিশের সামনে ধর্ষণের সাক্ষীকে মারধরের মামলার প্রধান আসামী গ্রেপ্তার

কামাল সিদ্দিকী: পাবনায় ধর্ষণ মামলায় সহযোগিতা করতে গিয়ে পুলিশের সামনে যুবককে মারধরের মামলার প্রধান আসামী আরিফ হোসেন (৩৮) কে গ্রেপ্তার করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। এ নিয়ে এ মামলায় এখন পর্যন্ত চারজনকে গ্রেপ্তার করা হলো। গ্রেপ্তারকৃত আরিফ সদর উপজেলার গোপালপুর গ্রামের এনছের প্রামানিকের ছেলে। এর আগে এ মামলায় আশরাফুল ইসলাম, তোফাজ্জাল হোসেন ও মিরাজ হোসেন নামের তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাছিম আহম্মেদ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার রাতে ঢাকা থেকে আরিফকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারের পর তাকে পাবনা সদর থানায় নিয়ে আসা হয়। শনিবার দুপুরে তাকে পাবনা আমলী আদালত-১ এ হাজির করে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন জানান তদন্তকারী কর্মকর্তা। শুনানী শেষে গ্রেপ্তারকৃত আসামী আরিফকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট কামাল উদ্দিন। উল্লেখ্য, গত ১৭ জানুয়ারি সন্ধ্যায় একটি ধর্ষণ মামলায় সহযোগিতা করতে গিয়ে সদরের গাছপাড়া বাজারে পুলিশের সামনে আসামীপক্ষের লোকজনের হাতে মারধরের শিকার হন আব্দুল আলীম নামের এক যুবক। এ ঘটনার সিসিটিভির ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে জেলা পুলিশ। আর হামলার ঘটনায় আরিফকে প্রধান আসামীসহ দশজনকে নামীয় ও অজ্ঞাত আরো কয়েকজনকে আসামী করে মামলা করেন আহত আলীমের স্ত্রী রুমা খাতুন।