রংপুর নগরীতে ছাত্র–ছাত্রী নিবাসের ভাড়া মওকুফের ঘোষণা দিয়েছেন এক মেস মালিক

জয়নাল আবেদীন: রংপুর নগরীর মাস্টার পাড়ার ওহী ছাত্রাবাস ও ওহী ছাত্রীনিবাসের মালিক এ্যাড: এন বি শিল্পী কবির ভাড়া মওকুফের ঘোষণা দিয়েছেন। করোনা পরিস্থিতিতে কর্মহীন হয়ে পড়েছে মানুষ। আয়-রোজগার বন্ধ থাকায় নিম্ন ও মধ্যবিত্ত পরিবারগুলোকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। সরকারি-বেসরকারি নানা ধরনের সাহায্য সহযোগিতা অব্যাহত রয়েছে। এরই ফলে বিশেষ বিবেচনায় সোমবার সকালে তিনি ভাড়া মওকুফ করার বিষয়টি সকল নিবাসীদের জানিয়ে দেন ।। ছাত্রবাস ও ছাত্রীনিবাসের মালিক এন বি শিল্পী কবির জানান, নগরীর কলেজ রোডের মাস্টার পাড়ায় অবস্থিত ওহী ছাত্রীনিবাসটি ২০১৩ সালে ও ওহী ছাত্রবাস ২০১৫ সালে চালু করা হয়। ছাত্রীনিবাসে ১৩ টি ও ছাত্রাবাসে ২৯টি সিটের মধ্যে সার্বক্ষণিক সেখানে নিম্নবিত্ত এবংমধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান শিক্ষার্থীরা অবস্থান করেন। বিদ্যুৎ বিল বাদ দিয়ে প্রতি মাসে ৪০ হাজার টাকা ছাত্রবাস ও ছাত্রীনিবাসটির ভাড়া থেকে আয় হয়। তিনি বলেন, করোনা সংকটের কারণে শিক্ষার্থীরা মেসে নেই। অনেকেই টিউশনি করে মেসভাড়া ও পড়াশোনার খরচ জোগাতেন। এই সংকটে অভিভাবকেরাও কষ্টে রয়েছেন।তাই জাতীয় এই দুর্যোগে এসব অসহায় শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াতে নৈতিক দায়িত্ববোধ থেকে তাদের ভাড়া মওকুফের ঘোষণা দিয়েছি। ওহী ছাত্রীনিবাসের শিক্ষার্থী তানিয়া বলেন,‘১৯ মার্চ থেকে প্রশাসনের নির্দেশে রংপুর শহরের সব মেস বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। শিক্ষার্থীরা বাড়িতে অবস্থান করলেও কয়েক দিন ধরে অধিকাংশ মেসের মালিক বকেয়া ভাড়া পরিশোধের জন্য চাপ দিচ্ছেন। অনেক মেসে মালিকেরা তালা ঝুলিয়েও দিয়েছেন। সেদিক থেকে আমাদের মেসমালিক ব্যতিক্রম। ওহী ছাত্রাবাসের শিক্ষার্থী মাসুম বলেন, এই দুর্যোগময় মুহূর্তে ছাত্রাবাসের মালিক ভাড়া মওকুফের ঘোষণা দিয়েছেন। এতে আমাদের মতো নিম্ন ও মধ্যবিত্ত পরিবার কিছুটা হলেও উপকৃত হবে। এজন্য তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এই শিক্ষার্থী। এদিকে রংপুরকে বর্তমানে শিক্ষা নগরি বলা হয় । এখানে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় , কারমাইকেল কলেজ বেগম রোকেয়া কলেজ, সরকারি রংপুর কলেজ, বেসরকারি মেডিকেল কলেজ রয়েছে ৩টি ছাড়াও অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শতাধিক মেসে ২৫হাজার অধীক শিক্ষার্থী অবস্থান করেন । তাদের মেস ভাড়াও মওকুপের দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা ।