রবিবার, জুন ২৩, ২০২৪
Homeসারাবাংলাকরোনায় হিমশিম খাচ্ছে রংপুর সিটি কর্পোরেশন: ১২লাখ মানুষের মধ্যে প্রতিদিন নমুনা সংগ্রহ...

করোনায় হিমশিম খাচ্ছে রংপুর সিটি কর্পোরেশন: ১২লাখ মানুষের মধ্যে প্রতিদিন নমুনা সংগ্রহ ৪০

জয়নাল আবেদীন: ৩৩টি ওয়ার্ডের প্রায় ১২ লাখ লোক সংখ্যা নিয়ে রংপুর সিটি কর্পোরেশন । নভেল করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার নেই কোন ব্যবস্থা। নেই নিজস্ব টেকনিশিয়ান। চূক্তিভিত্তিক স্থানীয় কিছু বেসরকারী ল্যাবের ল্যাব টেকনিশিয়ান ও সিটির স্বাস্থ্য কর্মীরা নগরীর বিভিন্ন পাড়া মহল্লার বাড়ি বাড়ি গিয়ে রোগিদের নমুনা সংগ্রহ করেছেন । সেই নমুনা রংপুর মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে এবং ঢাকা থেকে পরিক্ষা করানো হচ্ছে। জানা গেছে, ১২লাখ মানুষের মধ্যে রংপুর সিটির মাধ্যমে প্রতিদিন মাত্র ৪০জনের করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা আছে। এদের মধ্যে ২০জন পুরোনো রোগী এবং ২০জন নতুন রোগি। আর এই ৪০ জনের মধ্যে র‌্যাব ও পুলিশ সদস্যও রয়েছেন। রংপুর নগরীতে ইতোমধ্যে করোনা আক্রান্তে সংখ্যা সাড়ে ৫শ ছাড়িয়েছে। এ পর্যন্ত মারাও গেছে ৯ জন। রংপুর সিটি‘র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. কামরুজ্জামান ইবনে তাজ জানান, রংপুর নগরীতে ভয়াবহ অবস্থা, কিন্তু আমরা অসহায়। সিটির স্বাস্থ্য কর্মীরা প্রথমে প্রতিটি ওয়ার্ডের মহল্লায় মহল্লায় গিয়ে রোগি চিহ্নিত করে থাকেন। সম্ভব্য রোগিদের নামের তালিকা তৈরি করেন কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্য কর্মী ও ইপিআই সুপারভাইজাররা। এছাড়াও হটলাইনে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য শাখা থেকেও নমুনা সংগ্রহ করা হয়। তিনি জানান, রংপুর সিটি কর্পোরেশনে করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা নেই। মেয়র মহোদয়ের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় কর্পোরেশনের নিজস্ব অর্থায়নে চূক্তিভিত্তিক নগরীর বিভিন্ন ল্যাবের ল্যাব টেকনিশিয়ার দারা আমাদের স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্য কর্মী ও ইপিআই সুপার ভাইজারদের সহায়তায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে রোগিদের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে। ‘আমাকে প্রতিদিন মাত্র ৪০ জনের নমুনা সংগ্রহ করার আদেশ দেয়া হয়েছে। এরমধ্যে ২০টি পুরাতন রোগী এবং নতুন ২০টি রোগী। তিনি জানান, রংপুর মেডিকেল কলেজের পিসিআর মেশিনে দৈনিক ১শ৮৮টি নমুনা পরীক্ষা সম্ভব। সেখানে এক হাজারের বেশি নমুনা পরীক্ষায় জন্য পড়ে থাকে। সিটি করপোরেশনে নমুনা

সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠাচ্ছি। রংপুর নগরীতে বুথ করে নমুনা সংগ্রহের জন্য জেলা প্রশাসক, সিভিল সার্জন, বিভাগীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের জানিয়েছি। তাদের কোন নির্দেশনা এখনো পাওয়া যায়নি। রংপুর সিটি কর্পোরেশনের স্যানিটারী ইন্সপেক্টর আব্দুল কাইয়ুম জানান, ১২লাখ বসবাসকারি লোকের মধ্যে নগরীর বিভিন্ন এলাকা থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ৩ হাজার ১শ ৬০ রোগির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১৬জুন পর্যন্ত পজিটিভ হয়েছেন ৫শ২৫জন, সুস্থ্য ২শ ৪০জন, হাসপাতালে ভর্তি ২০জন, আর মারা গেছেন ৯জন। তিনি জানান, রংপুর সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা স্বার্বক্ষনিক তৎপর রয়েছেন। দু’টি এ্যাম্বুলেন্স, একটি লাশবাহী এ্যাম্বুলেন্স বিনামূল্যে ২৪ ঘন্টা সেবা প্রদান করা হচ্ছে। আর এই সেবা প্রদানের জন্য এ্যাম্বুলেন্সের ড্রাইভারসহ ১৪জন কর্মী সার্বক্ষনিক নিয়োজিত রয়েছেন। স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্য কর্মীরা দিনের বেলা রোগিদের নমূনা সংগ্রহ করেন এবং রাতের আক্রান্তদের বাড়ি ও প্রতিষ্ঠান লকডাউনের কাজে নিয়োজিত থাকছেন। এ যাবৎ রংপুর সিটি কর্পোরেশন এলাকায় প্রায় ৮শ বাড়ি ও প্রতিষ্ঠান লকডাউন করে দেয়া হয়েছে। রংপুর সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র মাহামুদুর রহমান টিটু জানান, দেশের ১২ টি সিটি কর্পোরেশনের মধ্যে একমাত্র রংপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য কর্মী দ্বারা করোনার নমুনা সংগ্রহের ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। করোনা সেবার এমন উদ্যোগটি জনপ্রতিনিধি মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফার দৃষ্টান্ত হয়ে দাঁড়িয়েছে নগরবাসীর কাছে। নভেল করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই নগর ভবনে গঠিত মেডিকেল টিমের নেতৃত্ব তার কাঁধে। নগর পিতা মেয়র মোস্তফা করোনাকালে শুধু নির্দেশনা নয়, সাহার্য্যপ্রার্থী মানুষের মাঝে ত্রাণ পৌছে দিচ্ছেন।এদিকে করোনা প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক ফকরুল আনাম বেঞ্জু জরুরি ভিত্তিতে রংপুরকে রেডজোন ঘোষণা করার দাবি জানান এবং রংপুর সিটি কর্পোরেশনের রোগিদের জন্য সিটি কর্পোরেশনের সদ্য নির্মিত যে কোনো একটি স্বাস্থ্য কেন্দ্রকে করোনা রোগিদের চিকিৎসা কেন্দ্র হিসেবে স্থাপন করার কথাও বলেন তিনি।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments