এস এম শফিকুল ইসলাম: জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার বীরনগর গ্রামের পঞ্চম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষকসহ এক ইউপি সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই ঘটনায় ছাত্রীর পরিবার সোমবার রাতে থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাদেরকে রাতেই গ্রেফতার করে।

মামলার বিবরণ সুত্রে জানা যায়, গত ১৬ জুন সন্ধ্যায় বীরনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরী-কাম নৈশ্য প্রহরী মেহেদী হাসানের বাড়িতে এস্যায়ম্যান্ট নিতে যায় ওই স্কুল ছাত্রী। এ সময় বাড়িতে কেউ না থাকায় ওই ছাত্রীকে পাশের ঘরে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে দপ্তরী মেহেদী হাসান। বাড়ি ফিরে ওই ছাত্রী এমন ঘটনা তার মা-বাবাকে জানান। তখন পরিবারের লোকজন স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিকে এ বিষয় জানায়। পরে স্থানীয় ইউপি সদস্য রাশেদুল ইসলাম ও উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্ম আহবায়ক আলীমুজ্জামান বাবুল টাকার বিনিময়ে আপোষ মিমাংসা করার জন্য ভুক্তভোগী পরিবারকে চাপ দেয়। তারা আপোষ মিমাংসাতে রাজি না হয়ে সোমবার রাতে পাঁচবিবি থানায় ধর্ষক মেহেদী হাসান, ইউপি সদস্য রাশেদুল ইসলাম এবং উপজেলা কৃষকলীগের যুগ্ম আহবায়ক আলীমুজ্জামান বাবুলকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। মামলার পর পুলিশ ধর্ষক মেহেদী হাসান এবং ইউপি সদস্য রাশেদুল ইসলামকে গ্রেফতার করে। মামলার আরও এক আসামী কৃষকলীগ নেতা বাবুল পালাতক রয়েছে। পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বলেন, স্কুলছাত্রীর পরিবার থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে। পরে তাদেরকে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Previous articleঈশ্বরদী থেকে সাগরদাঁড়ি, টুঙ্গিপাড়া ও মধুমতি এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রা বাতিল
Next articleজয়পুরহাটে এক দিনে সর্বোচ্চ ১১০ জনের করোনা শনাক্ত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।