বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রোববার সন্ধ্যা ৭টা। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচ‌নে নৌকা প্রতীকের পথসভা চল‌ছিল। সভায় সভাপতিত্ব করছি‌লেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মালেক মিলিটারি। নির্ধা‌রিত সময়ে সভাপতির বক্তব্য দি‌চ্ছি‌লেন তিনি। বক্ত‌ব্যের শেষে ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ ব‌লেই মৃত্যুর কো‌লে ঢ‌লে পড়েন।

পথসভায় উপ‌স্থিত একা‌ধিক কর্মী সমর্থক জানান, বক্তব্যের শেষে ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ বলেই বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মালেক মিলিটারি দ্রুত ব‌সে প‌ড়েন। পাঁচ মিনিটের মধ্যেই তিনি হৃদরো‌গে আক্রান্ত হন এবং সেখা‌নেই মৃত্যুবরণ করেন। প‌রে সভায় উপ‌স্থিত নেতাকর্মীরা তাকে দ্রুত উপ‌জেলা স্বাস্থ্য কম‌প্লে‌ক্সে নি‌য়ে যান। সেখা‌নে কর্তব্যরত চি‌কিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা ক‌রেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মালেক মিলিটারির এমন মৃত্যু‌তে প‌রিবার, এলাকা ও মু‌ক্তি‌যোদ্ধা‌দের মা‌ঝে শো‌কের ছায়া নে‌মে এসে‌ছে।

বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা আবদুল মালেকের ছে‌লে কা‌দের হাসান জানান, বাবা অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য ও বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা ছি‌লেন। বঙ্গবন্ধুর ভক্ত ছি‌লেন। বাংলা এবং বঙ্গবন্ধুর স্লোগান দি‌তে দি‌তেই তার মৃত্যু হয়েছে।

ওই পথসভায় উপস্থিত উপজেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নজরুল ইসলাম নবু বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মালেক আওয়ামী লীগের একনিষ্ঠ কর্মী ছিলেন। মৃত্যুর আগ মুহূর্তেও তিনি যে বক্তব্য রেখে গেছেন, তা অবশ্যই আমাদের জন্য অনুকরণীয় হয়ে থাকবে।

পা‌রিবা‌রিক সূ‌ত্রে জানা যায়, সোমবার বিকেল ৩টায় জানাজা শে‌ষে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মালেক মিলিটারির লাশ দাফন করা হ‌য়।

Previous article১২ বছরের কম বয়সীদের এখনই টিকা নয়: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
Next articleহিজবুল্লাহর বিরুদ্ধে সর্বাত্মক যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে ইসরাইল
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।