আবুল কালাম আজাদ: টাঙ্গাইল জেলা সদরে অসহায়-দরিদ্র পরিবারের বাড়ি বাড়ি গিয়ে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। গত সোমবার রাতে ২০০ পরিবারের দরজায় দরজায় গিয়ে কম্বল বিতরণ করেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রানুয়ারা খাতুন।

কম্বল পেয়ে মজিরন বেগম নামে এক নারী বলেন, ‘শীত যায় শীত আসে। কিন্তু আশ-পাশের অনেকেই সরকারি সহযোগিতা পেলেও আমার প্রতিবন্ধী ছেলে ও বৃদ্ধা শাশুড়ি কোন সহযোগিতা পায়নি। সোমবার রাতে হঠাৎ ইউএনও স্যার নিজে এসে শীত নিবারণের জন্য দুজনকে কম্বল দিয়েছেন। এতে তারা খুবই আনন্দিত। ইউএনও’র কাছ থেকে কম্বল পাওয়া ওই বস্তির সোরহাব আলী বলেন,কয়েকদিন ধরে তীব্র শীতে কষ্ট করছিলাম। কম্বল পাওয়ায় অনেক উপকার হইছে। টাঙ্গাইল সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার রানুয়ারা খাতুন জানান,গত এক সপ্তাহ যাবত শীত জেকে বসেছে। এই শীতে গরিব-দুঃখী মানুষ খুবই অসহায়। এসব অসহায়, দুস্থ ও দরিদ্রদের পাশে সবার দাঁড়ানো উচিত। সোমবার রাতে জেলা সদরের প্রায় ২০০ পরিবারের দরজায় দরজায় গিয়ে কম্বল বিতরণ করেছি। এ ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান ।

Previous articleশাহজাদপুরে জুয়েলারি কারখানায় ডাকাতি, ১৫ লাখ টাকার মালামাল লুট
Next articleটাঙ্গাইলে প্রেমিকের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে ট্রেনে কাটা পড়ে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।