বাংলাদেশ প্রতিবেদক: চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমু হত্যার দায় স্বীকার করে তার স্বামী ও বন্ধু আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবির।

শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার ঢাকার কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হুমায়ুন কবির জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টায় ঢাকার মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে হত্যার দায় স্বীকার করে অভিনেত্রী শিমুর স্বামী ও তার বন্ধু ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। পারিবারিক কলহের জের ধরে তার স্বামী ঘটনার দিন নিজ বাসায় শিমুকে হত্যা করে।

পরে লাশ গুম করতে তার বন্ধুকে বাসায় ডেকে আনেন। দুজনে পরিকল্পনা করে লাশ বস্তাবন্দি করে রাতে কেরানীগঞ্জের হযরতপুর এলাকায় আলীপুর সেতুর কাছে রাস্তার পাশে ফেলে পালিয়ে যায়।

শিমুর হত্যাকাণ্ডে স্বামী ছাড়া অন্য কেউ জড়িত নয় বলে জানান পুলিশ সুপার।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সালাম মিয়া জানান, আসামিরা স্বেচ্ছায় নিজের দোষ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেয়ায় দ্রুত সময়ের মধ্যে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করবেন।

এর আগে ১৭ জানুয়ারি সকাল ১০টার দিকে কেরানীগঞ্জ উপজেলার কদমতলী এলাকার আলীপুর ব্রিজের কাছে রাইমা ইসলাম শিমুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

চিত্রনায়িকা রাইমা ইসলাম শিমুর ঢাকাই ইন্ডাস্ট্রিতে অভিষেক ১৯৯৮ সালে। প্রথম সিনেমা কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘বর্তমান’। পরে প্রায় অর্ধশত সিনেমা ও অনেক নাটকে অভিনয় করেছেন তিনি।

Previous articleবেরোবি’র শিক্ষক সমিতির নির্বাচন: সভাপতি শরিফুল ইসলাম, সম্পাদক সৈয়দ আনোরুল আজিম
Next articleচান্দিনার মাঠ মাঠে নিরাপদ সবজির সবুজ সমারোহ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।