বাংলাদেশের হয়ে ‘খেলতে চান’ জাপানের মাতসুশিমা সুমাইয়া

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বাবা বাংলাদেশি। মা জাপানি। তাদের সঙ্গে মাতসুশিমা সুমাইয়া জাপানে বসবাস করলেও বাংলাদেশের হয়ে ফুটবল খেলার স্বপ্ন দেখছেন।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) রবিবার তাদের ফেইসবুক পেজে ২০ বছর বয়সী সুমাইয়ার কথা জানিয়েছে। কর্মকর্তারা বলছেন, এই তরুণীর দিকে নজর রাখছে ফেডারেশন।

বাফুফের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল থমাস স্মল্লি এবং বাংলাদেশের নারী দলের কোচ গোলাম রব্বানী বাফুফে ভবনে সুমাইয়াকে আমন্ত্রণ জানান। অনেক সময় তারা কথা বলেন।

সুমাইয়া জাপানে জন্মগ্রহণ করেন তার মায়ের উপাধি ‘মাতসুশিমা’নিয়ে। তার মা মাতসুশিমা তমোমি জাপানি। বাবার নাম মাসুদুর রহমান।

সুমাইয়া দুই বছর বয়সে বাংলাদেশে এসেছিলেন। শৈশব থেকেই তিনি ফুটবল নিয়ে আছেন।

সুমাইয়া শহরের সি ব্রিজ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে এ- লেভেলে পড়াশোনা করছেন। স্কুলে একটি ফুটবল দল গঠন করে ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত আন্ত-ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল টুর্নামেন্টে নেতৃত্ব দেন। প্রথমবারের মতো তার দল সেখানে চ্যাম্পিয়ন হয়।

সেই দলের মিডফিল্ডার হিসেবে খেলা সুমাইয়া প্রতিযোগিতার সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। তিনি এখন আই এম সি স্পোর্টিং একাডেমিতে খেলছেন।

গত বছর লিগামেন্টে আঘাত পান। চিকিৎসকেরা তাকে ফুটবল না খেলার পরামর্শ দিয়েছিলেন, কিন্তু সুমাইয়া ফুটবল খেলা ছাড়েননি। করোনার মধ্যেও প্রতিদিন তিন থেকে চার ঘণ্টা ফুটবল অনুশীলন করে যাচ্ছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাফুফে কর্মকর্তারা তার ইনজুরির বিষয়টিতে একটু চিন্তিত। চিকিৎসকদের সঙ্গে পরামর্শ করে সবুজ সংকেত পেলে তাকে জাতীয় দলের জন্য বিবেচনা করা হবে।