অতুল পাল: পটুয়াখালীর বাউফলে ফিল্মি স্টাইলে মো. রুবেল সিকদার (২৫) নামের এক যুবককে দিনের বেলায় তুলে নিয়ে লোহার রড দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে একটি পা ভেঙ্গে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর স্থানীয়রা ওই যুবককে উদ্ধার করে বাউফল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

আহত যুবক উপজেলার কনকদিয়া ইউনিয়নের কুম্ভুখালী গ্রামের মো.রাজ্জাক সিকদারের ছেলে। আজ সোমবার বেলা ১০টার দিকে উপজেলার বগা ইয়াকুব শরীফ ডিগ্রি কলেজের সামনে ওই ঘটনা ঘটেছে। আহত রুবেল জানান, সোমবার বেলা ১০ টার দিকে আমি কাজের জন্য বাউফলের বগা বাজারে যাই। এসময় বগা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আশ্রাফসহ ১০/১২ জনের একটি সংঘবদ্ধ দল আমাকে মটর সাইকেলে তুলে হত্যার উদ্দেশ্যে অজ্ঞাতস্থানে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় সুইচগিয়ার চাকু দিয়ে আমার পেটে কোপ দিতে চাইলে আমি বগা ইয়াকুব শরীফ ডিগ্রি কলেজের সামনে মটর সাইকেল থেকে লাফিয়ে পড়ি। পরে তারা আমাকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে এবং আমার বাম পা ভেঙে দেয়। আহত রুবেলের বাবা রাজ্জাক বলেন, বেশ কিছু দিন ধরে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আবদুল মোতালেব হাওলাদারের সাথে কনকদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মো. শাহিন হাওলাদারের রাজনৈতিক বিরোধ চলে আসছে। এ বিরোধকে কেন্দ্র করেই সম্পূর্ণ রাজনৈতিক কারণে সন্ত্রাসীরা আমার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশ্যে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছিল। আমার ছেলে রুবেল উপজেলার কনকদিয়া ইউপির চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদারের ড্রাইভার। এবিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল মোতালেব হাওলাদার জানান, এবিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। এটা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যে রটনা। বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আল মামুন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Previous articleটানা বর্ষনে তলিয়ে গেছে রংপুর নগরীর সমস্ত এলাকা
Next articleপ্রধানমন্ত্রীর ছবি সংবলিত ব্যানার ছিড়ে ফেলায় আওয়ামী লীগের ক্ষোভ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।