সোনারগাঁয়ে জমি দখলে বাঁধা দেয়ায় মসজিদের ইমামসহ ৬জনকে পিটিয়ে আহত

সোনারগাঁয়ে জমি দখলে বাঁধা দেয়ায় মসজিদের ইমামসহ ৬জনকে পিটিয়ে আহত

গিয়াস কামাল: নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার বারদী ইউনিয়নের গোয়ালপাড়া গ্রামে জমি দখলে বাঁধা দেয়ায় মসজিদের ইমামসহ ৬জনকে পিটিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। গত শুক্রবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জমির মালিক সাইদুর রহমান বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে সোনারগাঁ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এলাকাবাসী জানায়, গোয়ালপাড়া এলাকার আমির আলীর ছেলে লেন্দু মিয়া দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় জামে মসজিদের ইমাম ইয়াকুব আলীর একটি জমি ক্রয় করার জন্য ইয়াকুব আলীকে চাপ দিয়ে আসছিল। ইয়াকুব আলী জমি বিক্রি করবে না বলে জানিয়ে দেয়। পরে শুক্রবার সকালে লেন্দু মিয়া স্থানীয় প্রভাবশালী আমিনুল ইসলাম ভূঁইয়া ও লায়ন বাবুল হোসেন ভূঁইয়ার নেতৃত্বে একটিদল সন্ত্রাসী বাহিনী দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে মসজিদের ইমাম ইয়াকুব আলীর জমি জোড় পূর্বক দখল করতে যায়। ইয়াকুব আলীর আতœীয়-স্বজনরা বাঁধা দিতে গেলে সন্ত্রাসীরা পিটিয়ে ইয়াকুব আলী ( ৮০), সাইদুর রহমান (২৭), সগির আহাম্মদ, ফারুক মিয়া (৫২), মোতালিব (৩৮) ও গহন আলী মুন্সীকে আহত করে। এ ব্যাপারে জমির মালিক ইয়াকুব আলী জানান, আমার জমি আমি বিক্রি করবো না এটা জানিয়ে দেয়ার পরও তারা আমাকে বিভিন্ন ভাবে চাপ প্রয়োগ করে জমি বিক্রি করতে বাধ্য করতে চায়। রাজি না হওয়ায় তারা জমি জোড় পূর্বক দখলের চেষ্টা করে। আমি বাঁধা দিলে তারা হামলা চালিয়ে আমাকে ও আমার পরিবারের লোকজনকে পিটিয়ে আহত করেছে। অভিযুক্ত লেন্দু মিয়ার সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। সোনারগাঁ থানার এসআই আজিজুর রহমান আজিজ বলেন, আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনেছি। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, গোয়ালপাড়ায় হামলার ঘটনা শোনার পরই পুলিশ পাঠানো হয়েছে। একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত কর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।