জয়নাল আবেদীন: সপ্তম ধাপে অনুষ্ঠিতব্য মিঠাপুকুরের ১৭ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের আহবান জানিয়েছেন আওয়ামীলীগ।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে মিঠাপুকুর প্রেসক্লাবের সভা কক্ষে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে রংপুর জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ এ আহবান জানান।

আগামী ২২ জানুয়ারী মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। ১৭ ইউনিয়নের নৌকা, লাঙ্গল ও স্বতন্ত্র মিলে ১শ৫৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৭ ফেব্রুয়ারী।সংবাদ সম্মেলনে বক্তাগণ বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ হাসিনা যোগ্য ব্যক্তিকে নৌকা দিয়েছেন। এই নৌকা কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের প্রতীক। এর সম্মান রক্ষা করতে হবে। কেন্দ্রীয় ভাবে মনোনিত প্রার্থীদের বিজয়ী করার জন্য সকল স্তরের আওয়ামীলীগের নেতা- কর্মী ও সমর্থকদেও প্রতি আহবান জানান। মনোনয়ন বঞ্চিত প্রার্থীদেরকে দলীয় সিদ্ধান্তের বাহিরে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন না করার জন্য অনুরোধ জানিয়ে আগামী ২২ তারিখের মধ্যে মনোনয়ন পত্রপ্রত্যাহারের আহবান জানান।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তারা বলেন, মনোনয়ন বঞ্চিত কোন প্রার্থী দলীয় সিধান্ত অমান্য করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করলে, তার বিরুদ্ধে জেলা ও কেন্দ্রীয় কমিটি কঠোর পদক্ষেপ গ্রহন করবে। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন রংপুর জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাসুর পুত্র সায়াদাৎ হোসেন বকুল, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মোতাহার হোসেন মন্ডল মওলা, সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াজেদুল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাকির হোসেন সরকার।

এসময় রংপুর জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তরসম্পাদক আমিন সরকার, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক এরশাদুল হক রঞ্জু, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক গাওহারুল ইসলাম, মিঠাপুকুর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান বাবু নিরঞ্জন মহন্ত, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীমা আখতার জেসমিন, উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।

Previous article৪৩তম বিসিএস প্রিলির ফল প্রকাশ
Next articleশীর্তাতদের মাঝে আল আমিন ইসলামী টিভিডি লিমিটেডের কম্বল বিতরণ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।